বাবুগঞ্জে যৌতুকের বিরুদ্ধে মামলা করায় স্ত্রীকে জীবননাশের হুমকি

প্রকাশিত: ১১:২৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০২১

আরিফ হোসেন, বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ বরিশালের বাবুগঞ্জে স্বামীর বিরুদ্ধে যৌতুক মামলা দায়ের করায় স্ত্রীকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য জীবন নাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় যৌতুক লোভী স্বামী আল-আমিন এর বিরুদ্ধে স্ত্রী হাসিনা আক্তার মঙ্গলবার সকাল ১১টায় বাবুগঞ্জ প্রেস ক্লাবে উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। স্বামীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ সূত্রে নির্যাতিত গৃহবধূ মোসাঃ হাসিনা আক্তার জানান, তার স্বামী আল-আমিন তাকে বাবার বাড়ি থেকে দুই লাখ টাকার যৌতুক আনতে বলেন। গৃহবধূ ও দুই সন্তানের জননী হাসিনা আক্তার যৌতুক আনতে রাজি না থাকায় তাকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন।

 

এ ঘটনা নিয়ে একাধিকবার সালিস বৈঠক হলেও কোন সমাধান না হওয়ায় ১ নভেন্বর ২০২০সালে নির্যাতিত গৃহবধূ মোঃ হাসিনা আক্তার বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামি করে বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্র্যাইব্যুনাল আদালতে এ মামলা করেন। মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০০৮ সালে মানিকগঞ্জ জেলার ঘিওর উপজেলার পুরান গ্রামের জবেদ আলীর ছেলে মোঃ আল-আমিন’র সঙ্গে বিয়ে হয় বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার খানপুরা গ্রামের মোঃ চাঁন মিয়ার মেয়ে মোসাঃ হাসিনা আক্তারের। তাদের বিবাহিত জীবনে দুইটি সন্তান জন্ম হয়। বড় ছেলে মোঃ হাসিব (১০) ছোট মেয়ে পলি (৮)। বিয়ের ১২ বছর অতিবাহিত হওয়ার পর গত বছর ১০ ফেব্রুয়ারি স্বামী আল- আমিন ব্যবসার কথা বলে স্ত্রীকে তার বাবার কাছ থেকে দুই লক্ষ টাকা এনে দেয়ার কথা বলেন। স্ত্রী যৌতুক আনতে অস্বীকার করায় স্বামী আল-আমিন, শাশুড়ি কুলসুম বেগম মিলে গৃহবধূকে মারধর করে তার বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন।

এ সময় বাবা চাঁনমিয়া আহত অবস্থায় ফিরে আসা তার মেয়ে মোসাঃ হাসিনা আক্তার কে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহত গৃহবধূ সুস্থ হয়ে ঘটনার নয় মাস পরে বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে এ মামলা করেছেন।