বান্ধবী চেয়ে বিজ্ঞাপনে ২০ হাজার তরুণীর আবেদন!

প্রকাশিত: ১২:৫০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২০

তার নাম ইউসাকু মিজায়া। বয়স ৪৪ বছর। অভিনেত্রী বান্ধবীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর থেকে একাকিত্ব কাটাতে সঙ্গিনী খুঁজছিলেন। ডিসেম্বরে একটি রিয়েলিটি শো-তে গিয়ে সঙ্গিনী খোঁজার বিষয়টি জানান দেন। এরপরই হুমড়ি খেয়ে পড়ে তরুণীরা। ইউসাকু মিজায়ার সঙ্গিনী হতে আবেদন করেছেন প্রায় ২০ হাজার তরুণী। এর মধ্যে থেকে বেঁছে নিতে হবে একজনকে।

সঙ্গিনী হওয়ার জন্য আবেদনের শেষ সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল ১৭ জানুয়ারি। এর মধ্যেই প্রায় ২০ হাজার নারী আবেদন করেছেন। তার মধ্যে মধ্যবয়সী যেমন আছেন, তেমনি আছেন কলেজপড়ুয়া তরুণীও। আবেদনকারীদের সঙ্গে দেখা করে এক জনকে নিজের সঙ্গিনী হিসেবে পছন্দ করবেন মিজায়া। সব কাজ বাদ দিয়ে ৮ ঘণ্টা ঘুমের সময় রেখে সবাইকে ১৫ মিনিট করে সময় দিলেও লেগে যাবে ৩১২দিন।

কিন্তু কেন এত সংখ্যাক তরুণী তার সঙ্গিনী হতে পাগল? এমনও নয় যে তিনি বড় কোনো সেলিব্রেটি বা রুপালি জগতের তারকা। তবে তার সংস্থার ফ্যাশন রিটেল ওয়েবসাইট এই মুহূর্তে জাপানের বৃহত্তম ফ্যাশন রিটেল। অর্থকড়ির দিক দিয়ে নির্দিধায় তাকে ধনকুবের বলা যায়। তবে তার সঙ্গিনী হতে তরুণীদের লম্বা লাইন অন্য কারণে। স্পেসএক্সের স্টারশিপ রকেট ২০২৩ সালে চাঁদে যাবে। তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি ওই রকেটে করে চাঁদে যাওয়ার টিকিট কেটেছেন। কিন্তু একা একা চাঁদে ঘুরতে যেতে আগ্রহী নন তিনি। সে জন্যই গার্লফ্রেন্ডের বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন। যার সঙ্গে চাঁদে যেতে চান তিনি। সেই আবেদনেই সাড়া দিয়েছেন ২০ হাজার তরুণী।

Sharing is caring!