বানারীপাড়াকে গভীর রাতে পথে প্রান্তরে এমপি শাহে আলম

প্রকাশিত: ৭:৩০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২১

রাহাদ সুমন, বানারীপাড়া প্রতিনিধি ॥ শুক্রবার দিবাগত রাত ১টা। বানারীপাড়া উপজেলা ও পৌরবাসী যখন গভীর ঘুমে বিভোর ঠিক সেই সময়ও এলাকার উন্নয়নে পথে পথে ঘুরছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. শাহে আলম। বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলা ইতিহাস-ঐতিহ্য ও জ্ঞানী-গুণীর চারণ ভূমি। এখানকার বর্তমান সংসদ সদস্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সফল ও জনপ্রিয় সভাপতি মো. শাহে আলম। তার নেতৃত্বেই ১৯৯০ সালে এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে সারা দেশের ছাত্র সংগঠন গুলো উপ-মহাদেশের প্রাচীনতম সর্ববৃহৎ ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের পতাকাতলে একত্রিত হয়ে রাজপথ প্রকম্পিত করেছিলো। সেই আন্দোলনের পদভারে এরশাদ সরকার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন। যার অগ্রভাগের নায়ক ছিলেন তৎকালীন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি ও বর্তমানে বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. শাহে আলম। তিনি এমপি নির্বাচিত হবার পর থেকেই বানারীপাড়া ও উজিরপুর উপজেলাকে ঢেলে সাজাতে বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নেন। এরমধ্যে রয়েছে সন্ধ্যা নদীতে স্বপ্নের সেতু,মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র,বানারীপাড়ার সলিয়াবাকপুরে আধুনিক আব্দুর রব ঈদগাহ কমপ্লেক্স,সরকারি বানারীপাড়া ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশন (পাইলট) এ দুটি চারতলা ভবন,অত্যাধুনিক বাসস্টপ ও অডিটরিয়াম নির্মাণ উল্লেখযোগ্য।

 

এছাড়াও বানারীপাড়া ও উজিরপুর উপজেলাকে তিলোত্তমা উপজেলায় রূপান্তর করতে মহা পরিকল্পনা রয়েছে তার। পর্যায়ক্রমে সেই স্বপ্ন বাস্তবরূপ নিচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় ৫ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার বানারীপাড়ার মানুষ যখন গভীর ঘুমে তখন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মো. শাহে আলম এমপি মাঘের হাড় কাঁপানো কনকনে শীতকে উপেক্ষা করে ঢাকা থেকে আসা এলজিইডির নগর উন্নয়ন ও বিজিপির প্রকল্প কর্মকর্তা কাজী মো. মিজানুর রহমানকে সাথে নিয়ে সন্ধ্যা নদীর ওপরে সেতু নির্মাণের সম্ভাব্য স্থান পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ নাজিরপুর এলাকা পরিদর্শন করেন। পরে তিনি আধুনিক বাস স্টপ নির্মাণের জন্য বানারীপাড়ার বর্তমান বাস ষ্ট্যান্ড এলাকা পরিদর্শন করেন। এ সময় তার সাথে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নগর উন্নয়ন ও বিজিপির প্রকল্পের দুজন সিনিয়র প্রকৌশলী, বানারীপাড়া উপজেলা প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির, উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ডা. খোরশেদ আলম সেলিম, বানারীপাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রাহাদ সুমন, সংসদ সদস্যের এপিএস মো. জসিম মোল্লা, প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ আহম্মেদ শাওন, যুবলীগ নেতা জুবায়ের আহম্মেদ রুথেন, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সজল চৌধুরী,সাংবাদিক স্বপন মাঝি প্রমুখ।