বাউফলে শিয়ালের মাংসে পিকনিক


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৭:০১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০২০

বার্তা ডেস্ক ॥ পটুয়াখালীর বাউফলে শিয়ালের মাংস দিয়ে পিকনিক করেছে একদল যুবক। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের বৌলতলী চৌরাস্তা এলাকায় শিয়াল ধরে জবাই করা হয়। পরে সেই মাংস দিয়ে পিকনিকের আয়োজন করে যুবকরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উপজেলার বৌলতলী গ্রামের কয়েকজন যুবক মঙ্গলবার বিকালে একটি শিয়াল আটক করে। শিয়ালের মাংস খেলে শরীরের বাতব্যথা, শাসকষ্টসহ নানা রোগ ভালো হয়। এমন ধারণা থেকেই তারা শিয়াল জবাই করে। শিয়াল জবাইয়ের খবর ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক স্থানীয়রা তা দেখতে ভিড় করেন।

পরে ওই রাতেই রান্না করে খাওয়ার আয়োজন করে তারা। শিয়ালের মাংস খাওয়ার জন্য ২০ টাকা করে চাঁদা তোলা হয়। স্থানীয় মৃধা বাড়িতে ওই শিয়ালের মাংস রান্না করা হয়। আয়োজনের খবর পেয়ে স্থানীয় ২৫-৩০ জন যুবক ছাড়াও বেশ কয়েকজন বয়স্ক ব্যক্তি শিয়ালের মাংস খেতে ওই উৎসবে অংশ নেন। রাজীব নামে এক যুবক বলেন, বিকাল ৫ টার দিকে শিয়ালটি ধরা হয়।

স্থানীয় মুরব্বিরা বলেন, শিয়ালের মাংস খেলে শরীরের বাত ব্যথা ভালো হয়। তাই আমরা নিজেদের মধ্যে চাঁদা তুলে এটি রান্না করে মাংস খেয়েছি।
শিয়ালের মাংস রান্না করার বাবুর্চি আবু তাহের বলেন, শিয়ালের মাংস খাওয়ার জন্য ৭ কেজি আটা দিয়ে রুটি তৈরি করা হয়। অনেক মজা করে শিয়ালের মাংস দিয়ে রুটি খেয়েছি। খেতে খুব ভালোই লেগেছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে কারা এই পিকনিক করেছে তা আমার জানা নেই।

এ প্রসঙ্গে বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বন্যপ্রাণী আটক করা বা খাওয়া অপরাধ। বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে বন বিভাগ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে।