বাউফলে ভুয়া মাদ্রাসায় প্রধানমন্ত্রীর অনুদান !

প্রকাশিত: ১:২৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

বার্তা ডেস্ক ॥ পটুয়াখালীর বাউফলে ৩টি ভুয়া মাদ্রাসায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে অনুদান দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। দীর্ঘদিন ধরে ওই ভুয়া মাদ্রাসার নামে বরাদ্দকৃত অনুদানের চেক পড়ে আছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, করোনার কারণে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সারাদেশের কওমী মাদ্রাসায় বিশেষ অনুদান প্রদান করা হয়। বাউফল উপজেলার মোট ১৩টি মাদ্রাসার নামে ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা অনুদান দেয়া হয়। পটুয়াখালী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের শিক্ষা ও কল্যাণ শাখা থেকে গত ২৬মে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট একটি চিঠি পাঠানো হয়। চিঠিতে বাউফল উপজেলার ১৩টি কওমী মাদ্রাসার নাম এবং বরাদ্দকৃত টাকা বিভাজন উল্লেখ করে পরবর্তী ৩ কার্য দিবসের মধ্যে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে চেক প্রদান এবং চেক প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলা হয়।

এরপর ১০টি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে চেক নেয়া হলেও এখন পর্যন্ত ৩টি প্রতিষ্ঠানের চেক নেয়া হচ্ছে না। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চাঁদকাঠি কাসিমুল উলুম হাফিজিয়া কওমী মাদরাসা, লতিফুল উলুম হাফিজিয়া কওমী মাদরাসা এবং দারুল কোরআন ওয়াস সুন্নাত কওমী মাদ্রাসার নামে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৩০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। বাস্তবে এই ৩টি নামে কোন মাদ্রাসা নেই।

কওমীয়া মাদ্রাসা সংগঠন বেফাকুল মাদারেসিল আরাবিয়া (বেফাক) বাউফল উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও মদনপুরা জামিয়া কোরানিয়া হাফিজিয়া কওমিয়া মাদ্রাসার মোহতামিম হাফেজ মাওলানা আবদুল কুদ্দুস সাংবাদিকদের বলেন, ওই ৩টি নামে উপজেলায় কোনো কওমীয়া মাদ্রাসা আছে বলে আমার জানা নেই।

এ প্রসঙ্গে বাউফলের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, ওই ৩টি মাদ্রাসার চেক এখনও বিতরণ করা হয়নি। যাচাই বাছাই করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোনো ভুয়া প্রতিষ্ঠানের নামে অনুদান বরাদ্দ নেয়ার কোনো সুযোগ নেই। তালিকায় কিভাবে ওই ৩টি প্রতিষ্ঠানের নাম এসেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার দপ্তর থেকে কোনো তালিকা দেয়া হয়নি, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Sharing is caring!