বাংলাদেশ দলে ডাক পেলেন পুলিশের বাবলু

প্রকাশিত: ৬:৪০ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৬, ২০২০

বার্তা ডেস্ক ॥ দলে অনেক নতুন খেলোয়াড়কে সুযোগ দিয়েছেন জেমি ডে।দলে অনেক নতুন খেলোয়াড়কে সুযোগ দিয়েছেন জেমি ডে।বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের যৌথ বাছাইপর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডের জন্য জাতীয় দল ঘোষণা করেছেন জেমি ডে। আগ থেকেই কোচের পছন্দের তালিকায় ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশে কনস্টেবল পদে চাকুরি করা ম্যাথিউজ বাবলু। পছন্দের উইঙ্গারকে দলে ডেকেছেন জেমি। এই উইঙ্গারের সঙ্গে দলে নতুন মুখ আরও চারজন। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন বসুন্ধরা কিংসে খেলা প্রবাস ফেরত ডিফেন্ডার তারিক রায়হান কাজী, পুলিশের মিডফিল্ডার নাজমুল ইসলাম রাসেল ও উত্তর বারিধারার স্ট্রাইকার সুমন রেজা।

৩৬ সদস্যের দলে সর্বশেষ খেলা ওমান ম্যাচের ২৩ সদস্যকেই রাখা হয়েছে। নতুন চার মুখের সঙ্গে দীর্ঘদিন পর চোট থেকে ফিরেছেন মিডফিল্ডার আতিকুর রহমান ফাহাদ, মাসুক মিয়া জনি ও মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ। ৩৬ জনের তালিকায় ১৪ জন খেলোয়াড় বসুন্ধরা কিংসের, আবাহনী লিমিটেডে ও সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের সাতজন, চট্টগ্রাম আবাহনীর তিনজন, শেখ রাসেল ও বাংলাদেশ পুলিশের দুইজন করে এবং একজন উত্তর বারিধারার।

বাছাইপর্বের বাকি চারটি ম্যাচ সামনে রেখে ৭ আগস্ট থেকে গাজীপুরের সারাহ রিসোর্টে শুরু হবে জামাল ভূঁইয়াদের ক্যাম্প। এবারের ক্যাম্পে আলাদা চোখ রাখা যেতে পারে বাবলু ও প্রবাসী তারিকের ওপর। বসুন্ধরায় নাম লেখানোর আগে ফিনল্যান্ড অনূর্ধ্ব–১৯ দলের হয়ে খেলার অভিজ্ঞতা আছে রাইট ফুলব্যাক রায়হানের। আর বাবলু বাতিল হওয়া লিগে দারুণ খেলছিলেন। লিগে পাঁচ ম্যাচ খেলে গোল করেছেন দুইটি। মাঠ জুড়ে দৌড়াতে দেখাতে যায় ২১ বছর বয়সী এই উইঙ্গারকে।

স্বাভাবিকভাবে প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়ে উচ্ছ্বসিত এই তরুণ, ‘স্বপ্ন পূরণ হলো। এখন ২৩ সদস্যের মূল দলে থাকতে চাই। শুধু ক্যাম্পে ডাক পেলেই তো চলবে না, নিজেকে প্রমাণও করতে হবে।’

৩৬ সদস্যের বাংলাদেশ দল:

গোলরক্ষক: আশরাফুল ইসলাম রানা, শহিদুল আলম সোহেল, আনিসুর রহমান ও পাপ্পু হোসেন।

ডিফেন্ডার: তপু বর্মন, ইয়াসিন খান, বিশ্বনাথ ঘোষ, সুশান্ত ত্রিপুরা, তারিক রায়হান কাজী, টুটুল হোসেন বাদশা, রায়হান হাসান, রিয়াদুল হাসান, রহমত মিয়া, ইয়াসিন আরাফাত ও মনজুরুর রহমান মানিক।

মিডফিল্ডার: আতিকুর রহমান ফাহাদ, রবিউল হাসান, বিপলু আহমেদ, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, মাসুক মিয়া জনি, মামুনুল ইসলাম মামুন, সোহেল রানা, মোহাম্মদ আরিফুর রহমান, জামাল ভূঁইয়া, মানিক হোসেন মোল্লা, রাকিব হোসেন ও নাজমুল ইসলাম রাসেল।

ফরোয়ার্ড: মাহবুবুর রহমান সুফিল, মতিন মিয়া, তৌহিদুল আলম সবুজ, সাদ উদ্দিন, নাবিব নেওয়াজ জীবন, ফয়সাল আহমেদ ফাহিম, ম্যাথিউজ বাবলু ও সুমন রেজা।

Sharing is caring!