বরিশাল কারাগারে হাজতির আত্মহত্যার ঘটনায় কারারক্ষী বরখাস্ত


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৯:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥

বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের শৌচাগারে ধর্ষণ মামলার আসামির গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার ঘটনায় এক কারারক্ষীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

দায়িত্ব অবহেলার অপরাধে মো. কাওছার হোসেন নামের ওই কারারক্ষীকে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বনিক।

এর আগে গত ১৪ নভেম্বর রাত ৩টার দিকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের শৌচাগারে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন নিজ প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ মামলার হাজতি হানিফ খলিফা (৪০)।

তিনি বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার মধুখালী এলাকার আলী মোহাম্মদ খলিফার পুত্র। তবে তিনি বরিশালের বিমানবন্দর থানা এলাকায় ভাড়া থাকতেন।
বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বনিক জানান, ‘আত্মহননকারী যে কক্ষে ছিলেন, সেখানকার দায়িত্বে ছিলেন কারারক্ষী মো. কাওছার। তার দায়িত্ব অবহেলার কারণে ওই ঘটনা ঘটতে পারে। এ কারণে তাকে প্রাথমিকভাবে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, ‘নিজের প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর বরিশাল মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানায় হানিফ খলিফার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন তার স্ত্রী।
ওই মামলায় গ্রেফতার হয়ে গত ১ অক্টোবর থেকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে হাজতি হিসেবে ছিলেন হানিফ খলিফা। মাঝখানে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য তাকে বাইরে পাঠানো হয়।

তাই কারাগারে ফেরার পরে তাকে জেলখানার হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। পরে গত শনিবার রাতে মশারী কেটে তা দিয়ে রশি বানিয়ে শৌচাগারের পানির পাইপের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।