বরিশাল এবং ঝালকাঠি থেকে নারীসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৪:৩৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল নগরী এবং ঝালকাঠির রাজাপুর থেকে নারীসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৮। এসময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমাণের গাঁজা এবং ইয়াবা ট্যাবলেট। পৃথক দুই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গণমাধ্যমে প্রেরিত খবর বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল রোববার বিকেল পৌনে ৬ টার দিকে নগরীর ২০ নং ওয়ার্ড বৈদ্যপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাবের সদস্যরা। এসময় উল্লিখিত এলাকার অনির্বাণ ক্যাডেট কলেজ সংলগ্ন শিবলু বিলাস নামক বাড়ির নিচ তলায় কেয়ারটেকারের ঘর এবং স্টোর রুম থেকে ৪ কেজি গাঁজা ও ৮১৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা লাকি আক্তার (২৫) নামের নারী মাদক ব্যবসায়ী এবং তার সহযোগী ওই বাড়ির কেয়ারটেকার মোঃ মিন্টু হাওলাদার (৩২)কে। গ্রেপ্তারকৃত লাকি আক্তার চর কাউয়ার হিরন নগরের বাসিন্দা আমির হোসেন সরদারের মেয়ে। তার সহযোগী মিন্টু হাওলাদারের বাড়ি ঝালকাঠির বিরমোহনে। তিনি ওই এলাকার আফছের হাওলাদারের ছেলে।

গ্রেপ্তারকৃদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, লাকি আক্তার কুমিল্লার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদকের বড় চালান সংগ্রহ করতেন। এরপর ঢাকার সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল থেকে ঢাকা-বরিশাল রুটের লঞ্চযোগে মাদকের চালান নিয়ে আসতেন বরিশালে। মাদক পরিবহনের সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ এড়ানোর জন্য তার দুই বছরের শিশু সন্তানকে সাথে নিয়ে যেতেন লাকি।

এছাড়া মাদক পরিবহনে কখনো রাইসকুকার, কখনো পাপোস, শীতলপাটি, কখনোবা ফলের কার্টন ব্যবহার করতেন। এরপর মাদক নিজের বাসায় না রেখে শিবলু বিলাস নামক বাড়ির কেয়ারটেকারের ঘর ও স্টোররুমে মজুদ করতেন। সেখান থেকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ও সংলগ্ন এলাকার তরুণ সমাজ, রিক্সাচালক ও বিভিন্নবয়সী মাদকসেবীদের কাছে খুচরা মাদক বিক্রি করতেন।

এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে বরিশাল মহানগরীর কোতয়ালী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

অপরদিকে ঝালকাঠির রাজাপুর থেকে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ মেহেদী হাসান ওরফে সোহেল(১৯) কে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৮। গতকাল রোববার দুপুরে রাজাপুরের পারগোপালপুর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় সোহেলের কাছ থেকে ১৯৮ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছে র‌্যাব।

গণমাধ্যমে প্রেরিত খবর বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, মাদক কেনাবেচার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার বেলা দেড়টার দিকে পারগোপালপুর গ্রামে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানের এক পর্যায় বেলা ২ টার দিকে ঝালকাঠি-পিরোজপুর মহাসড়কের মধ্য মনোহরপুর ব্রিজ সংলগ্ন এলাকা থেকে মাদক বিক্রেতা সোহেলকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেহে তল্লাশী চালিয়ে ১৯৮ পিস ইয়াবা এবং মাদক বিক্রির নগদ ৪ হাজার টাকা উদ্ধার করেন র‌্যাবের সদস্যরা।

গ্রেফতারকৃত মেহেদী হাসান ওরফে সোহেল রাজাপুরের পূর্ব ফুলহার থানার বাসিন্দা মৃত রুস্তম আলী খান’র ছেলে। মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় র‌্যাব-৮ এর ডিএডি মোঃ লুৎফর রহমান বাদী হয়ে রাজপুর থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছেন।