বরিশালে ৫ দিনে ১৫ কোটি ১২ লাখ টাকার জাল-মাছ জব্দ : গ্রেফতার ৯৯

প্রকাশিত: ৪:১৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ::

প্রজনন মৌসুমে ইলিশ সংরক্ষণ ও ইলিশ নিধন অভিযানে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হাতে বিগত পাঁচ দিনে ৯৯ জনের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নিয়মিত মামলা হয়েছে ৪টি। আর অবৈধ মাছ ও জাল জব্দ হয়েছে ১৫ কোটি ১২ লাখ ৩৫ হাজার টাকার।

নৌ-পুলিশ বরিশাল অঞ্চলের পক্ষ থেকে সোমবার এই তথ্য জানানো হয়েছে। পুলিশ পরিদর্শক আবু তাহের এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, জব্দকৃত মাছ এতিমখানায় এবং উদ্ধারকৃত জাল ভ্রাম্যমাণ আদালতের অনুমতিক্রমে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। তাছাড়া গ্রেফতারকৃত জেলেদের কয়েকজনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা হয়েছে। বাকিদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড প্রদান করেছেন।

নৌ-পুলিশ জানিয়েছে, বরিশাল অঞ্চলের ১৫টি পুলিশ স্টেশনের আওতায় ১৮ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে ১৯ অক্টোবর সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময়ে ৮৫ লাখ ২৩ হাজার মিটার অবৈধ জাল ২৯০ কেজি মাছ, ৯টি নৌকা জব্দ করা হয়। জব্দকৃত জালের আনুমানিক মূল্য ৫ কোটি ১০ লাখ ২৬ হাজার এবং মাছের মূল্য ১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা।

নৌ-পুলিশ বরিশাল অঞ্চলের পুলিশ সুপার কফিল উদ্দিন জানিয়েছেন, আমরা চেষ্টা করছি মানুষকে প্রজনন মৌসুমে ইলিশ শিকারে নিরুৎসাহিত করতে। এজন্য প্রচার-প্রচারণা জোর দিয়ে চালানো হচ্ছে। কিন্তু যেসব ব্যক্তি কোন নির্দেশনাই মানছেন না, নদীতে নেমে ইলিশ শিকার করছেন তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।
প্রসঙ্গত, ১৪ অক্টোবর থেকে ২২ দিনের প্রজনন মৌসুমের ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান শুরু হয়। যা শেষ হবে আগামী ৪ নভেম্বর রাত ১২ টায়। এই সময়ের মধ্যে নদীতে মাছ শিকার, ইলিশ বিপণন ও সংরক্ষণ আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

Sharing is caring!