বরিশালে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভা পণ্ড করতে বিশৃঙ্খলা : চটলেন কেন্দ্রের নেতারা

প্রকাশিত: ৭:৫৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ::

বরিশাল মহানগরসহ বিভাগের অন্যান্য জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সুপারফাইভ নেতাদের সাথে মতবিনিময় সভা করতে এসে চটে গেলেন কেন্দ্রীয় নেতারা। বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ারের নাম নিয়ে স্লোগান দিয়ে পরিস্থিতি উত্তপ্তের চেষ্টা করেন দলের অঙ্গ সংগঠনের এক গ্রুপ নেতা-কর্মীরা। যা নিয়ে বিব্রত স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতারা রেগেমেগে দলীয় কার্যালয়ে সভাস্থল ত্যাগ করে নিচে নেমে আসেন।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে নগরীর সদর রোডস্থ বরিশাল জেলা ও মহানগর বিএনপি কার্যালয়ের সামনে এই ঘটনা ঘটে। অভিযোগ উঠেছে বরিশালে স্বেচ্ছাসেবক দলকে গতিশীল করতে আসা স্বেচ্ছাসেবক দলের বিভাগীয় টিমের কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত করতেই এমন সংগঠন বিরোধী কর্মকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে।

দলীয় সূত্রে জানাগেছে, ‘দেশব্যাপী স্বেচ্ছাসেবক দলের কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষ্যে বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে বিভাগীয় পর্যায়ের টিম গঠন করেছে স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটি। যারা প্রতিটি বিভাগে জেলা ও মহানগরে গিয়ে স্থানীয় নেতাদের সাথে মতবিনিময় করে দলকে সু-সংগঠিত করতে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিবেন।

এরই অংশ হিসেবে শুক্রবার স্বেচ্ছাসেবক দলের বরিশাল বিভাগীয় টিম লিডার ও সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আজহারুল হক মুকুল এর নেতৃত্বাধীন টিম বরিশাল নগরীতে আসে। সকালে সদর রোডের দলীয় কার্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় মিলিত হন আলোচনা সভায়। এই সভায় অংশগ্রহণ করেন বরিশাল মহানগর ও বিভাগের ছয় জেলার স্বেচ্ছাসেবক দলের সুপার ফাইভ নেতারা।

সভা শুরুর মুহূর্তে স্বেচ্ছাসেবক দল বরিশাল মহানগর কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সমির ও সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেদুুজ্জামান রাসেদের নেতৃত্বে যুবদল, ছাত্রদল এবং স্বেচ্ছাসেবক দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা মিছিল সহকারে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হন। এক পর্যায় তারা রহস্যজনক কারণে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমবেত হয়ে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ারের নাম নিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন।

উপস্থিত দলীয় নেতারা জানিয়েছেন, ‘উচ্চ স্বরে বারবার স্লোগান দেয়ায় সভার কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হয়। তাই সভাস্থল থেকে দলীয় নেতারা বার বারই তাদের স্লোগান না দেয়ার জন্য অনুরোধ জানান। কিন্তু তাতে কাজ না হওয়ায় ঢাকা থেকে আসা স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ফরিদ উদ্দিনসহ অন্যান্য নেতারা ক্ষুব্ধ হন। তারা রেগেমেগে সভাস্থল থেকে উঠে এসে দলীয় কার্যালয়ের বাইরে বেরিয়ে স্বেচ্ছাসেবক দলের দুই নেতার প্রতি ক্ষোভ ঝাড়েন। পরে তিনি নিজেই দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়া নেতা-কর্মীদের সরিয়ে দিয়ে পুনরায় সভা শুরু করেন।

স্বেচ্ছাসেবক দলের একাধিক নেতা-কর্মী জানিয়েছেন, ‘রাজনৈতিক গ্রুপিংয়ের কারণে দলীয় কার্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভা ভণ্ডুলের চেষ্টা করে একটি মহল। ওই মহলের অদৃশ্য ইশারাতেই গ্রুপটি দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান স্লোগান দেয় বলে অভিযোগ সভায় উপস্থিত নেতা-কর্মীদের। তবে সভাটি ভণ্ডুল চেষ্টার পেছনে কারা জড়িত সে বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি কেউ।

এদিকে বরিশাল মহানগরসহ বিভাগের ছয় জেলার স্বেচ্ছাসেবক দলের সুপার ফাইভ নেতাদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছেন কেন্দ্র থেকে আসা সংগঠনের বিভাগীয় টিমের নেতারা।

শুক্রবার সকালে নগরীর সদর রোডে জেলা ও মহানগর বিএনপি কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় টিমের প্রধান ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আজহারুল হক মুকুল।

প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় তিনি সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনারা করো বদনাম, হিংসা-প্রতিহিংসা, পেছনে বসে দলাদলির কথা ভুলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের হাতকে আরও শক্তিশালী করতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান আরিফ, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. নুরুজ্জামান, ফজলুল কবীর জুয়েল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক বেলাল আহমেদ, জেএম আমিনুল ইসলাম লিপন ও মহাবুবুর রহমান পিন্টু।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বরিশাল মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সমির, সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মঞ্জু, যুগ্ম সম্পাদক খান মো. আনোয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেদুজ্জামান রাসেদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি তাউর রহমান আওয়াল, সাধারণ সসম্পাদক রফিকুল ইসলাম জনি, যুগ্ম সম্পাদক আজিজুর রহমান ভূইয়া মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাবের আবদুল্লাহ সাদি প্রমুখ।

Sharing is caring!