বরিশালে রীতিমতো খানদানি ব্যাপার!


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৯:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২০

শফিক মুন্সি ::

সর্পিলাকার কীর্তনখোলা নদীর কোলঘেঁষা নগরী বরিশাল। নন্দিত কবি জীবনানন্দ দাশের জন্মভূমি বিধায় ভালোবেসে অনেকে বরিশালকে কবিতার শহর উপাধি দেন। বৃটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুত্থান সকল পর্যায়ে বরিশালের গণজাগরণ ইতিহাস সমৃদ্ধ। ঐতিহাসিক এ শহরে আধুনিকতার তুলির আঁচড়ে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে সুপার শপ ‘খান বাজার’।

 

‘সঠিক মান, সঠিক দাম’ প্রতিশ্রুতি নিয়ে নগরীর চাঁদমারীর চৌরাস্তা সংলগ্ন এলাকায় পর্দা উঠতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির। শুক্রবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বরিশালের নগরপিতা সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ শুভ উদ্বোধন করবেন নগরবাসীর হাজারো চাহিদা মেটাতে চাওয়া ‘খান বাজারের’। সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত তিন হাজার স্কয়ার ফিটের বিশাল দোকানটিতে দৈনন্দিন প্রয়োজনের ১৫ হাজার দেশি – বিদেশি পণ্যের সমাহার ঘটানো হয়েছে। নামের বিচারে যা রীতিমতো খানদানি হিসেবে উপস্থাপিত হয়েছে নগরবাসীর কাছে।

 

এম খান গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে যাত্রা শুরু করতে যাওয়া এই সুপারশপ নিয়ে নগরবাসীর আকাঙ্খা আকাশচুম্বী। নগরীর ব্রাউন কম্পাউন্ড এলাকার বাসিন্দা ব্যাংক কর্মকর্তা ইশরাত জাহান বলেন, শহরে বেশ ক’টি সুপার শপ থাকলেও একই জায়গায় গৃহস্থালির সব প্রয়োজনীয় পণ্য পাওয়া যাবে এমন ব্যবস্থা কেউ করতে পারে নি। শুনেছি ‘খান বাজার’ বরিশাল বিভাগের সবচেয়ে বড় সুপার শপ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছে। আশাকরি গ্রাহকের সকল চাহিদা মিটিয়ে সত্যিকার আধুনিক সুপার শপ হবে প্রতিষ্ঠানটি।

 

নগরবাসীর চাহিদা পূরণে প্রতিষ্ঠানটি যে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ তার প্রমাণ মেলে কর্তৃপক্ষের কথায়। এম খান গ্রুপের অন্যতম পরিচালক রাফসান খান রাফি বলেন, একটি পরিবারে যা যা দরকার সেগুলোর সবকিছু একই ছাদের নিচে প্রাপ্তির আয়োজন করেছি আমরা। কোন বাড়ির বসার ঘর থেকে রান্নাঘর পর্যন্ত যেসকল পণ্য প্রয়োজন সেগুলো সব থাকবে ‘খান বাজারে’। তবে সকল পণ্য যেন গুণগত মানের দিক থেকে অতুলনীয় থাকে সে ব্যাপারে কড়াকড়ি রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

 

অন্যদিকে বরিশালের এই ব্যবসায়ী গ্রুপটির প্রতিষ্ঠাতা মাহফুজ খান জানান,‘খান বাজারে’ ক্রেতার সার্বক্ষণিক সেবায় নিয়োজিত থাকবে প্রায় ২০ জন অভিজ্ঞ কর্মী। দেশি পণ্যের সাথে সাথে মৌলিক বিদেশি পণ্য আমদানি করা হবে। প্রতিটি পণ্য সরাসরি কারখানা থেকে সংগ্রহ করা হবে বিধায় দামে হবে সাশ্রয়ী। সবকিছু মিলিয়ে বরিশালবাসী যেন সেবা ও মান বিবেচনায় সুপারশপমুখী হয় সেই চেষ্টা করবো আমরা।