বরিশালে মারামারি থামাতে গিয়ে রক্তাক্ত স্বেচ্ছাসেবক

প্রকাশিত: ১০:১৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মারামারি থামাতে গিয়ে ধারালো অস্ত্রের কোপে রক্তাক্ত জখম হয়েছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের এক কর্মী। সোমবার দুপুরে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সংলগ্ন এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর পরই থানা পুলিশ বশির নামে একজনকে আটক করেছে। আহত যুবক জাহিদ ইরফান স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিডি ক্লিন এর অতিরিক্ত সমন্বয়ক আইটি ও লজিস্টিক’র। এছাড়া তিনি বরিশাল টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্র। তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তথ্য নিশ্চিত করে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিডি ক্লিন বরিশাল বিভাগীয় সমন্বয়কারী মাসুদুর রহমান জানান, ‘পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোমবার সকালে বরিশাল নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় পরিচ্ছন্নতা অভিযান শুরু করেন তারা।

 

অভিযান শেষে তারা পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যবহৃত বালতি, দা, কোদালসহ অন্যান্য সামগ্রী গোছানোর কাজ করছিলেন। এসময় শহীদ মিনার সংলগ্ন এলাকায় দু’জন রেন্ট-এ কার চালকের মধ্যে মারামারি হয়। বিষয়টি নজরে আসলে বিডি ক্লিন টিমের স্বেচ্ছাসেবকরা মারামারি থামাতে এগিয়ে আসেন।

এসময় বশির নামের এক চালক অপর চালককে দৌড়ে গিয়ে হামলার চেষ্টাকালে পাশে থাকা বিডি ক্লিনের বালতির ওপর পড়ে যান। সেখানে থাকা ধারালো দা নিয়ে বশির পুনরায় অপর চালককে কুপিয়ে জখমের চেষ্টা করেন।

 

তখন বিডি ক্লিনের স্বেচ্ছাসেবক জাহিদ ইরফান হাত দিয়ে বাধা দিতে গেলে তার ডান হাত কেটে গিয়ে ক্ষত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন অন্যান্য স্বেচ্ছাসেবকরা। পাশাপাশি খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে হামলাকারী বশিরকে আটক করতে পারলেও অন্যরা পালিয়ে যান।