বরিশালে মাদক সেবনে বাঁধা দেয়ায় নারী ও শিশুকে পিটিয়ে জখম

প্রকাশিত: 5:48 PM, October 14, 2019

বরিশালের উজিরপুরে মাদক সেবনের প্রতিবাদ করায় নারী ও শিশুকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে মাদকসেবী সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।মামলা ও আহত সুত্রে জানা যায় উপজেলার পশ্চিম হারতা গ্রামের ওয়াহেদ আলী মৃধার ছেলে মাদকসেবী কামাল হোসেন মৃধা(৩৫) বিভিন্ন সময় একই গ্রামের মোশারফ হোসেন এর বসত বাড়ীর পাশে একটি বাগানে মাদকের আসর বসায় এর প্রতিবাদ করে মোশারফ হোসেনের স্ত্রী ঝর্না বেগম। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদকসেবী সন্ত্রাসীরা গৃহবধুর পরিবারকে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও প্রানে মেরে ফেলার হুমকী দিয়ে আসছিল।

এরই ধারাবাহিকতায় গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭ টায় মাদকসেবী কামাল হোসেন ও তার পিতা ওয়াহেদ আলি মৃধা মিলে গৃহবধু ঝর্না বেগম ও তার শিশু পুত্র ওমর ফারুক ওরফে জাহিদ(১১)কে বসত বাড়ীতে ঢুকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। এসময় মা ও ছেলে ডাকচিৎকার করলে পরবর্তীতিতে দেখে নেয়ার হুমকী দিয়ে মাদকসেবীরা চলে যায়। আহত গৃহবধু ও শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা উজিরপুর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় আহত গৃহবধুর শশুর মজিবুর রহমান বাদী হয়ে উল্লেখ্য দুজনকে আসামী করে ১২ অক্টোবর উজিরপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।আহত সুত্রে আরো জানা যায়, ওই মাদক সেবীদের বিরুদ্ধে আদালতে ১২৯/১৭নং একটি মামলা চলমান রয়েছে। সেই মামলায় গৃহবধুর স্বামী মোশারফ হোসেন আদালতে সাক্ষি দিতে গেলে তাকে প্রানে মেরে ফেলবে বলে হুমকী দিচ্ছে মাদকসেবী কামাল হোসেন। হুমকীর মুখে আতঙ্কে আহত’র পরিবার।

অভিযুক্তরা মাদকসেবন,জুয়া, চাঁদাবাজীসহ এলাকায় বিভিন্ন ক‚কর্মের সাথে জড়িত রয়েছে। ওই মাদকসেবী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান আহত গৃহবধুর পরিবার।

Share Button