বরিশালে ধ্বংস করা হলো ২৯ হাজার পচা ডিম

প্রকাশিত: ৯:১৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২০

মো. জিয়াউদ্দিন বাবু ::

হোটেল কিংবা রেস্তোরাঁয় চটকদার বা জনপ্রিয় খাবারগুলোতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় ডিম। এছাড়া বেকারির প্রায় সকল খাদ্য সামগ্রীতে বহুল ব্যবহৃত দ্রব্যটিও এই ডিম। কিন্তু অতিরিক্ত মুনাফার লোভে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ব্যবহার করে নষ্ট ও পচা ডিম। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বরিশালের নাজিরেরপোল এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় ২৯ হাজার নষ্ট ডিম উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একটি দল হানা দেয় নাজিরেরপোল এলাকার ফেরদাউস এন্ড ব্রাদার্স নামের প্রতিষ্ঠানটিতে। প্রতিষ্ঠানটির গোডাউন থেকে এই প্রচুর সংখ্যক নষ্ট ডিম জব্দ করা হয়। পরবর্তীতে জব্দকৃত সকল ডিম ধ্বংস করা হয় এবং ভোক্তা অধিকার আইনের আওতায় প্রতিষ্ঠানটিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এসময় প্রতিষ্ঠানটির কাছ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী নগরীর কাউনিয়া বিসিক শিল্প নগরীর মনখুশি বেকারিতে অভিযান চালানো হয়। সেখানে পচা ডিম দিয়ে কেক তৈরি এবং অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য সংরক্ষণের অস্তিত্ব পায় অভিযানকারী দল। পরবর্তীতে মনখুশি বেকারির মালিক পক্ষকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

পুরো অভিযানে নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুমী রানী মিত্র ও জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ শাহ শোয়াইব। এসময় তাদের সহযোগিতা করেন ১০ আর্মড পুলিশ ব্যাটেলিয়ানের সদস্যরা।

এ ব্যাপারে সুমী রানী মিত্র মুঠোফোনে জানান,মূলত ঢাকা থেকে নষ্ট ও পঁচা ডিম সংগ্রহ করে মনখুশি বেকারির মতো নগরীর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সরবরাহ করতো ফেরদাউস অ্যান্ড ব্রাদার্স নামক প্রতিষ্ঠানটি। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার প্রতিষ্ঠানটিতে অভিযান চালিয়ে ২৮-২৯ হাজার পচা ডিম জব্দ করা হয়। এসব ডিম নগরীর কাউনিয়া এলাকায় অবস্থিত সিটি কর্পোরেশনের ময়লার ডাম্পিং স্টেশনে নিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

অন্যদিকে অভিযানকারী দলের আরেক গুরুত্বপূর্ণ সদস্য মোঃ শাহ শোয়াইব শনিবার রাতে জানান, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের আওতায় পচা ডিম সংরক্ষণ ও ব্যবহারের দায়ে দুটি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ তারা করবে না বলে মুচলেকা প্রদান করেছে। জনস্বার্থে সামনেও এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

Sharing is caring!