বরিশালে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি

প্রকাশিত: ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশালে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে ৩ পুলিশ সদস্যসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার দিনভর অভিযান চালিয়ে শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। পরে গতকাল মঙ্গলবার তাদের একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করেছে বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন, বরিশাল জেলা পুলিশ লাইনসে কর্মরত কনস্টেবল বেল্লাল হোসেন, মো. ইলিয়াস ও বরিশাল মেট্রোপলিটন নগর বিশেষ শাখার (সিটিএসবি) কনস্টেবল আনিসুর রহমান মৃধা। বাকি তিনজন হচ্ছেন, পুলিশ সদস্যদের সহযোগী সুজন চন্দ্র শীল, শিরিন সুলতানা এবং সুবর্ণা আক্তার। মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের একটি সূত্র জানায়, গ্রেপ্তার শিরিন সুলতানার সাথে সাম্প্রতিকালে বরিশাল সমাজসেবার অফিসের কম্পিউটার অপারেটর সবুজ মোল্লার পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্র ধরে গত ১১ জুলাই তিনি সুবর্ণাকে নিয়ে সবুজ মোল্লার ভাড়াটিয়া বাসা শহরের আমতলার মোড়স্থ স্বপ্ন নীড়ে যান। এবং সেখানে কথা বলার একপর্যায়ে শিরিন সুলতানা ননদ পরিচয় দিয়ে সবুজ মোল্লার সাথে সুবর্ণাকে পরিচয় করিয়ে দেন। আলাপারিতার কিছুক্ষণ পরে সহযোগী সুজন চন্দ্র শীলসহ তিন পুলিশ সদস্য সেখানে প্রবেশ করে নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে জিম্মি করেন। এবং দাবি করেন, সুবর্ণার সাথে সবুজ মোল্লাকে অনৈতিক অবস্থায় পাওয়া গেছে। তখন গ্রেপ্তারের ভয়ভীতি দেখিয়ে তিন পুলিশ সদস্য সবুজ মোল্লার কাছে ১ লাখ টাকা দাবি করলে পরবর্তীতে ৫৩ হাজারে রফাদফা হয়। এসময় নগদ ১৩ হাজার ও বিকাশের মাধ্যমে আরও ৪০ হাজার টাকা এনে দেওয়া হয়। ১৫ জুলাই সবুজ মোল্লা নিশ্চিত হন তিনি শিরিন সুলতানার প্রতারণার শিকার হয়েছেন এবং এই বিষয়টি বরিশাল মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশকে অবহিত করেন। পরে সোমবার দিনভর ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম অভিযান চালিয়ে তিন পুলিশ সদস্যসহ ৬ জনকে শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। এই ঘটনায় ওই রাতেই বরিশাল মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি মডেল থানায় চাঁদাবাজি ও প্রতারণার অভিযোগ এনে মামলা করেন ভুক্তভুগী সবুজ মোল্লা। পরে তাদের সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে গতকাল মঙ্গলবার বরিশাল মেট্রোপলিটন দ্বিতীয় আমলী আদালতে প্রেরণ করে কোতোয়ালি পুলিশ। সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক আনিচুর রহমান তাদের কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন।

Share Button