বরিশালে চরের মাটি কাটায় তিন জনের কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশালে নদীর চর থেকে বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধে তিন শ্রমিককে পৃথক মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশাপাশি জব্দ করা হয়েছে মাটি কাটার কাজে ব্যবহৃত একটি বেকু (স্ক্যাভেটর) মেশিন। শুক্রবার দুপুরে বরিশাল সদর উপজেলার চন্দ্রমোহন ইউনিয়নের চর পাওয়ার এলাকায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মেহেদী হাসান এর মোবাইল কোর্টে তাদের এ দণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে।

 

দণ্ডিতরা হলেন- খালেক হাওলাদার, বায়েজিদ হাসান ও শিমুল মিয়া। এদের মধ্যে খালেককে তিন মাস, বায়েজিদ ও শিমুলকে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। তথ্য নিশ্চিত করে মোবাইল কোর্টের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান জানান, ‘অবৈধভাবে বালু এবং মাটি কাটার ফলে প্রতিদিন নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে নদীর তীরের মানুষ। নদী ভাঙনে বিলীন হচ্ছে অনেক গ্রাম। তিনি বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন নদীতে জেগে ওঠা চর থেকে অবৈধভাবে বেকু মেশিন দিয়ে মাটি কাটা হচ্ছে। এমন খবর পেয়ে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জসীম উদ্দীন হায়দার এর নির্দেশে চন্দ্রমোহন চর পাওয়ার এলাকায় মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় পুলিশ ও স্থানীয় জনসাধারণের সহযোগিতায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে মেশিন দিয়ে সরকারি চরের মাটি কাটার অপরাধে তিনজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ১০ অনুযায়ী এক থেকে তিন মাস পর্যন্ত কারাদ- প্রদান করা হয়েছে।