বরিশালে কমেছে করোনার সংক্রমণ : বেড়েছে ভ্যাকসিন গ্রহণকারী

প্রকাশিত: ১১:০৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিনদিন কমে আসছে। তাই এ অঞ্চলের মানুষের মধ্যে করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণের আগ্রহ বেড়েছে। শুরু থেকে ভ্যাকসিনে অনাগ্রহ থাকলেও বর্তমানে আগ্রহীদের ভিড় বাড়ছে টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে জানাগেছে, ‘বরিশাল বিভাগে প্রথম করোনা শনাক্ত হয় গত বছরের ৯ এপ্রিল। এ পর্যন্ত বিভাগের ছয় জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৬৫৮ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৩১৯ জন। ভাইরাসটিতে মারা গেছেন ২০২ জন।

 

ছয় জেলার মধ্যে বরিশালে আক্রান্ত ৪ হাজার ৬৮১ জন, সুস্থ ৪ হাজার ৭৩৫ জন ও মৃত্যু ৮৮ জন। পটুয়াখালীতে আক্রান্ত এক হাজার ৭৪৪ জন, সুস্থ এক হাজার ৬৯৬ জন এবং মারা গেছেন ৪১ জন। ভোলায় আক্রান্ত ৯৮৫ জন, সুস্থ ৯৪৫ জন ও মৃত্যু ১০ জন। পিরোজপুরে এক হাজার ১৯২ জন, সুস্থ এক হাজার ১২৩ জন এবং মারা গেছেন ২৫ জন। বরগুনায় এক হাজার ৩৩ জন, সুস্থ এক হাজার সাতজন ও মৃত্যু ২২ জন। ঝালকাঠিতে আক্রান্ত ৮৪৩ জন, সুস্থ ৮১৩ জন এবং মারা গেছেন ১৬ জন।
খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, বরিশাল বিভাগে গত ২৯ জানুয়ারি প্রথম করোনা ভ্যাকসিন এসে পৌঁছায়। এ পর্যন্ত মহানগরীসহ বরিশাল বিভাগের ছয় জেলার জন্য তিন লক্ষ ৪৮ হাজার ১০ ডোজ ভ্যাকসিন বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বরিশালে গত ২৯ জানুয়ারি করোনার ভ্যাকসিন পৌঁছায়। এরপর থেকেই সবাই ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহ প্রকাশ করে আসছিলেন। যার মধ্যে বরিশাল জেলায় এক লাখ ৬৮ হাজার ১০ ডোজ, ঝালকাঠিতে ১২ হাজার ডোজ, পিরোজপুরে ৩৬ হাজার, পটুয়াখালীতে ৪৮ হাজার, বরগুনায় ২৪ হাজার ও ভোলায় ৬০ হাজার ডোজ।

 

স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানাগেছে, ‘করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ভ্যাকসিন গ্রহণ কার্যক্রমের শুরুতে সাধারণ মানুষের মধ্যে এ নিয়ে অনাগ্রহ ছিল। কিন্তু বর্তমানে ভ্যাকসিন নিয়ে শঙ্কা কেটে যাওয়ায় আগ্রহীর সংখ্যা ব্যাপক হারে বেড়েছে। কার্যক্রমের শুরুতেই বরিশালে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন বরিশাল-৬ আসনের সংসদ সদস্য নাসরিন জাহান রতনা, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার প্রলয় চিসিম, বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামান শাহীন, হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন, জেলার সিভিল সার্জন ডা. মনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

 

এর পর পরই ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন বরিশাল-৮ আসনের সংসদ সদস্য পংকজ নাথ, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান, বরিশালের জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার, বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাশ, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস প্রমুখ।

তাদের ভ্যাকসিন গ্রহণের খবরে মানুষের মাঝে ভ্যাকসিন নিয়ে জমে থাকা ভয় কেটে যায় বলে মনে করছেন অনেকে। বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাশ বলেন, ‘বরিশাল বিভাগে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার দিনে দিনে কমতে শুরু করেছে। সেই সাথে করোনা থেকে সুরক্ষায় ভ্যাকসিন গ্রহণকারীদের সংখ্যাও ক্রমশ বাড়ছে। কেননা ইতিপূর্বে যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন তারা সবাই শারীরিকভাবে পুরোপুরি সুস্থ আছেন। মানুষ বুঝতে পেরেছে করোনা ভ্যাকসিন সম্পূর্ণ নিরাপদ ও পাশর্^প্রতিক্রিয়াহীন। তাছাড়া ভ্যাকসিন গ্রহণে সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির কারণে মানুষ এখন দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়েও ভ্যাকসিন নিচ্ছেন।

 

ভ্যাকসিন নিয়ে কোন ধরনের গুজব-গুঞ্জন থেকে বিরত থেকে মহামারি করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষায় সকলকে ভ্যাকসিন গ্রহণের আহ্বান জানান বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস।