বরগুনায় ৩ জনকে কুপিয়ে- পিটিয়ে জখমের অভিযোগ


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ১১:৪৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩১, ২০২১
বার্তা ডেস্ক ॥
বরগুনা জেলার সদর মনসাতলি গ্রামে জমি বিরোধের জের ধরে ছোট ভাই ও তার পরিবারের তিনজনকে কুপিয়ে-পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে বড় ভাই ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে। গত ২৮ মার্চ রবিবার বিকেল পাঁচটায় নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলো, মৃত মফিজ উদ্দিন আকন এর ছেলে সড়ক ও জনপদের অবসরপ্রাপ্ত ওয়ার্ক সুপারভাইজার মজিবুল হক আকন এবং মুজিবুল হকের স্ত্রী আসমা বেগম ও ছেলে মারুফ। বর্তমানে তারা গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদের মধ্যে আসমা বেগম এর অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। তবে অবস্থার অবনতি হলে যেকোনো সময় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। আহত মজিবুল জানান, দীর্ঘদিন ধরে পৈতৃক ওয়ারিশ জমি নিয়ে মুজিবুল হক ও তার পরিবারের সাথে তার বড় ভাই আব্দুর রশিদ ও তার সহযোগীদের বিরোধ চলে আসছে। আব্দুর রশিদ তার ওয়ারিশ জমি বিক্রি করে দিয়ে ছোট ভাই মজিবুল হকের জমি জোরপূর্বক জবর দখল করার চেষ্টা চালায়। এমনকি মুজিবুল হকের জমিতে প্রবেশ করে তার গাছপালা জোরপূর্বক কেটে নিয়ে যায় আব্দুর রশিদ ও তার পরিবারের সহযোগীরা। বিষয়টি নিয়ে মজিবুল স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানালে আব্দুর রশিদ ও তাঁর সহযোগীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। এরই জের ধরে ঘটনার দিন বিকেল পাঁচটায় আব্দুর রশিদ ও তার ছেলে নাজমুল এবং তাদের সহযোগী আবুল বাশার, রশিদ শিকদার, হামিদুল, আয়েশা বেগমসহ ২০-২৫ জনের একদল সন্ত্রাসী পরিকল্পিতভাবে মজিবুল হককে হত্যার চেষ্টায় হামলা চালায়। এসময় মুজিবুল হকের স্ত্রী আসমা বেগম ও ছেলে মারুফ আসলে তাদেরকেও কুপিয়ে-পিটিয়ে আহত করেন আব্দুর রশিদ সহ অন্যান্য সহযোগীরা। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক বরগুনা হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে আহতদের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে স্বজনরা জানান।