বরগুনায় নৌকার নির্বাচনী কার্যালয়ে ককটেল বিস্ফারণে জনমনে আতঙ্ক

প্রকাশিত: ৮:১৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২১

তরিকুল ইসলাম রতন, স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরগুনা পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী কার্যালয় সম্মুখে ককটেল বিস্ফোরণ চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বর্তমানে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। শুক্রবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৮টার দিকে বরগুনা পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের চরকলোনী বিআরটিসি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নৌকা প্রতীকের অস্থায়ী কার্যালয় সংলগ্ন স্থানে পরপর দুটি ককটেল বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণের বিকট শব্দে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দু-জন মুখোশধারী যুবক হঠাৎ দুটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ১নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাইমুর রহমান জানান, আমরা পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ডে নৌকার প্রচারণায় ব্যস্ত ছিলাম। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে ছুটে আসি এবং কর্মী-সমর্থকদের নৌকার ক্যাম্পে অবস্থান নেই।
তিনি আরও বলেন, জগ প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী শাহাদাত হোসেনের লোকজন এই হামলা চালিয়েছে বলে আমি মনে করি।

এর আগেও কয়েকবার নৌকার কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলা চালিয়েছে শাহাদাত হোসেনের বাহিনী। আমরা জানি না, দল ক্ষমতায় থাকার পরেও বিদ্রোহী প্রার্থীর লোকজন কিভাবে নৌকা প্রতীকের কার্যালয়ের সামনে ককটেল হামলা চালায়। এতো সাহস তারা কই পায়। আপনারা এখন বুঝে নেন। আমরা আওয়ামীলীগ করি, আমরাই হামলার শিকার হই। বরগুনায় কৃষ্ণের খেলা চলছে অন্য কিছু নয়। পরে আমরা প্রতিবাদ সভা করি।

প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, আওয়ামী লীগের সদ্য বহিষ্কৃত বিদ্রোহীপ্রার্থী শাহাদাত হোসেনের লোকজন এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকতে পারে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। এবং জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

এবিষয়ে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম তারিকুল ইসলাম বলেন, খবর শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে সেবিষয়ে তদন্ত চলছে।

তবে ঘটনার সাথে যারা জড়িত রয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান।