ববিতে ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ পাবেন বাছাই করা শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ১০:২২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১

বার্তা ডেস্ক ॥ সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরে। তবে ভর্তি-ইচ্ছুক সব পরীক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন না। আবেদনের পর শুধুমাত্র বাছাই করা প্রার্থীরাই এই ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

২০টি বিশ্ববিদ্যালয় হলো- পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

 

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছাদেকুল আরেফিন। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, বৈঠকে তিনটি সিদ্ধান্ত হয়েছে। মন্ত্রণালয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নেয়ার পর এই ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা হবে। ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা আবেদন করবেন। এ ক্ষেত্রে কোনো ফি লাগবে না। এরপর আবেদন যাচাই-বাছাই করে নির্ধারিত সংখ্যক প্রার্থীদের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে। যোগ্য প্রার্থীরা ৫০০ টাকা ফি দিয়ে আবার আবেদন করবেন এবং এসব প্রার্থীই ভর্তি পরীক্ষা অংশ নিতে পারবেন। ভর্তি পরীক্ষায় ভুল উত্তরের জন্য নম্বর কাটা যাবে বলেও জানান তিনি। প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্র থাকবে বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে। ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা সুবিধামতো কেন্দ্র পছন্দ করতে পারবেন।