বন্ধ পাটকলগুলো কে রাষ্ট্রয়াত্ব খাতে রেখেই আধুনিকায়ন করতে হবে :রাশেদ খান মেনন


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৮:৫৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন,‘বন্ধ করে দেয়া পাটকলগুলো কে রাষ্ট্রয়ত খাতে রেখেই আধুনিকায়ন করতে হবে’। শুক্রবার (২৮ আগস্ট) বিকেলে পার্টির বরিশাল জেলা কমিটির ভার্চুয়াল সভায় একথা বলেন তিনি।

তিনি জানান, সরকারি – বেসরকারি অংশীদারিত্বে (পিপিপি) নয় ব্যক্তিমালিকদের হাতেই তুলে দেয়া হচ্ছে রাষ্ট্রয়াত পাটকল গুলোকে। রাষ্ট্রয়াত পাটকল গুলোর প্রায় ৫০ হাজার শ্রমিক এখন কর্মহীন।

বরিশাল জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অধ্যাপক নজরুল হক নীলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় পাট শিল্প রক্ষা, স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনা বন্ধে করণীয় ইত্যাদি বিষয় আলোচিত হয়।

এসময় মেনন উল্লেখ করেন, রাষ্ট্রয়াত্ব পাটকল বন্ধ করে দিয়ে কেবল পাট শিল্প শ্রমিক নয়, পাট চাষ ও পাট চাষীদের ক্ষতিগ্রস্ত করা হচ্ছে। অথচ, পাট শতভাগ অর্থ সংযোজনকারী পণ্য এবং সবচেয়ে বেশি পরিবেশবান্ধব। তিনি পাট শিল্প রক্ষায় পাটচাষী-শ্রমিক-ব্যবসায়ী সহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

সভায় জেলায় করোনাকালীন কার্যবিবরণী তুলে ধরেন বরিশাল জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট টিপু সুলতান। আলোচনায় অংশ নেন তালুকদার মোঃ শাহজাহান, মোজাম্মেল হক ফিরোজ, অধ্যাপক গোলাম হোসেন প্রমুখ।

আলোচনায় বক্তারা জোয়ারের পানিতে বরিশালের বিস্তীর্ণ অঞ্চল ডুবে যাওয়া ও অব্যাহত নদী ভাঙনে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশন কে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানানো হয়। সভার অপর এক প্রস্তাবে করোনা সংক্রমণ রোধে জনগণকে সচেতন করতে পার্টির পক্ষ থেকে বরিশালে মাস্ক বিতরণ এবং প্রচার অভিযান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।