বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণই ছিল স্বাধীনতার ঘোষণা


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ১১:৫৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ৭, ২০২১

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ॥

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণই ছিল স্বাধীনতার ঘোষণা বলে মন্তব্য করেছেন, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। গতকাল রবিবার বিকেলে ঝালকাঠি সদর থানা চত্বরে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে জেলা পুলিশ আয়োজিত আনন্দ উৎসব অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগের বর্ষিয়ান নেতা আমু বলেন, ৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির মুক্তির সংগ্রামের কথা তুলে ধরেন। তাঁর ১৮ মিনিটের ভাষণ একটি ইতিহাস। এই ভাষণ বঙ্গবন্ধু আগে লিখে এনে পাঠ করেননি। এটি তিনি তাৎক্ষণিকভাবে উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে বলেছিলেন। তাই ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বসেরা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। এটা বাঙালি জাতি হিসেবে আমাদের গৌরবের। ১৪ দলের মুখপাত্র আমির হোসেন আমু বলেন, ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু যাতে স্বাধীনতা ঘোষণা না করেন, সেজন্য পাকিস্তানের পক্ষ থেকে চাপ ছিল। তবুও বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির মুক্তির কথা চিন্তা করে এমন একটি ভাষণ দেন, যার মধ্যে স্বাধীনতার ঘোষণা ছিল। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম। ঝালকাঠির পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, প্রেসক্লাবের সভাপতি চিত্তরঞ্জন দত্তসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। এর আগে ৭ মার্চ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। এছাড়া নানা কর্মসূচির মধ্য ঝালকাঠিতে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে। গতকাল রবিবার সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে জেলা আওয়ামী লীগ। এ উপলক্ষে টাউনহলের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় আলেচানা সভা। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সালাহউদ্দিন আহম্মেদ সালেক। বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক অ্যাভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার, যুগ্ম সম্পাদক তরুণ কর্মকার, সংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুব রহমান হাবিল ও জেলা যুবলীগ আহ্বায়ক রেজাউল করিম জাকির।