প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের অপেক্ষায় মঠবাড়িয়ার ওয়াটার সাপ্লাই ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট

প্রকাশিত: ৯:৪৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৯, ২০২১

মঠবাড়িয়া সংবাদদাতা ॥ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌর সভায় ৫৩ কোটি ৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা ব্যয়ে ওয়াটার সাপ্লাই ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। জাতীয় সংসদের তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রীর নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি মোতাবেক বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা শীঘ্রই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এটি উদ্বোধন করবেন। গত ২৬ জানুয়ারী বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে পৌর মেয়র ও উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মো. রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস সুপেয় পানি সরবরাহ কার্যক্রম উন্মুক্ত অনুষ্ঠানের মতবিনিময় সভায় একথা জানান।

 

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আ’লীগ সহ-সভাপতি আরিফ উল হক, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আলী হাসান,উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মোহাঃ নূর আলম, ওসি মাসুদুজ্জামান মিলু,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান সিফাত, সাংবাদিক আবদুস সালাম আজাদী, মিজানুর রহমান মিজু প্রমুখ। বক্তারা বলেন, পৌরসভায় সুপেয় পানির সমস্যা দীর্ঘ দিনের। খাবার বিশুদ্ধ পানি না থাকায় পৌরবাসী পুকুর ও খাল -বিলের দূষিত পানি বাধ্য হয়ে পান করছেন। প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে এ সমস্যার সমাধান হতে যাচ্ছে। সুপেয় পানির ব্যবস্থার খবরে পৌরবাসীর মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

 

পৌর মেয়র মো. রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস বলেন, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক ও বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে উপকূলীয় শহর পরিবেশগত অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৫৩ কোটি ৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা ব্যয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে ও পৌর সভার উদ্যোগে সিনো কনস্ট্রাকশন ওয়াটার সাপ্লাই ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট তৈরী করে। ২০১৮ সালের মার্চ মাসে প্ল্যান্ট তৈরীর কাজ শুরু করে তারা।

 

তিনি আরও বলেন, ২০০৪ সালের মে মাসে শহরের শহীদ মোস্তফা খেলার মাঠে বিশাল জনসভায় পৌর বাসীর দাবীর মুখে তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা আ’লীগ সরকার গঠন করলে মঠবাড়িয়া পৌরবাসীর জন্য সুপেয় পানির ব্যবস্থা করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন।

 

পৌর নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুস ছালেক জানান, গত ডিসেম্বর মাসের ১৫ তারিখ থেকে পরীক্ষা মূলক পানীর লাইন চালু করা হয় এবং পরবর্তীতে সুপেয় পানি সরবরাহ কার্যক্রম উন্মুক্ত ঘোষণা করা হয়। ইতোমধ্যে পৌর সভায় ৩ হাজার ৫শ গ্রাহককে সংযোগ দেয়া হয়েছে। পৌর শহরের কলেজ পাড়া ও ৮ নং ওয়ার্ডে পৃথক দুটি পানির ট্যাঙ্কি নির্মাণ করা হয়েছে। প্রতিদিন দু’ধাপে পানি সরবরাহ করা হবে।

ছবি : সৌজন্য