পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে বরগুনার নব নির্বাচিত মেয়রের খোলা-চিঠি

প্রকাশিত: ৮:২৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২১

তরিকুল ইসলাম রতন, স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরগুনা পৌরসভায় মেয়র নির্বাচিত হয়ে পৌরবাসীর প্রতি অ্যাড. কামরুল আহসান মহারাজ তার হৃদয়ের অন্তস্থল থেকে ভালোবাসার উষ্ণতা জানিয়েছেন। শনিবার বরগুনা পৌরসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে তিনি মেয়র নির্বাচিত হন। স্বপ্নের বরগুনা বিনির্মাণে উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রায় পৌরবাসীর মূল্যায়ন ও দক্ষ বিবেচনার রায়ে উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে অকুণ্ঠ সমর্থন জানিয়ে যে -সম্মান, বিশ্বাস ও ভালোবাসা দেখিয়েছেন তার জন্য তিনি ও তার দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে পৌরবাসীর প্রতি চির কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

নব নির্বাচিত মেয়র অ্যাড. কামরুল আহসান মহারাজ শপথ করে বলেন, আমি বরগুনা পৌরবাসীর বিশ্বাসের পবিত্র আমানতের মর্যাদা আমার শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও রক্ষা করবো ইনশাআল্লাহ।

 

তিনি পৌর পিতা কিংবা মেয়র স্যার নন, তিনি পৌরবাসীর সেবক মহারাজ হয়ে থাকতে চান। তিনি পৌরবাসীর ভাই এবং সন্তান।

এ বিজয় তার একার নয় সকলের। তার পাশাপাশি সবাই এই শহরের মেয়র। সবাই মিলে সকলের স্বপ্নের বরগুনা গড়ে তুলতে নিশ্চয় সক্ষম হবেন তিনি। নির্বাচন একটি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া এখানে শতমত, শত ব্যক্তি থাকবে, এটাই রাজনৈতিক সৌন্দর্য। ভোট যুদ্ধে যারা তার পাশাপাশি বিজয় প্রত্যাশী ছিলেন তারা সকলেই হয়তো তার থেকেও যোগ্যতম। বরগুনা গড়ায় আমাদের সকলের স্বপ্ন ও দক্ষতা কোন ভাবেই কম নয়। কিন্তু গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় একজনকে নির্বাচিত করতে হয়, এটা আনুষ্ঠানিকতা মাত্র।
এছাড়াও তিনি বলেন, আমরা সকলে মিলে আমাদের স্বপ্নের শহর গড়ে তুলবো। সব বিভেদ কষ্ট ভুলে সকলেই একতাবদ্ধ হয়ে, সবাই মিলে বরগুনা পৌরসভার উন্নয়নে কাজ করবো ইনশা- আল্লাহ।

আমি কৃতজ্ঞতা জানাই আমার শুভানুধ্যায়ী সহযোদ্ধা সমর্থক ভাইদের ও বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের। আপনারা যে পরিশ্রম করেছেন তা কিছুই বৃথা যায়নি।

আপনারাই মূলত এ বিজয়ের কা-ারি, আমি আপনাদের উপহার মাত্র। সাধারণ মানুষ আপনাদের নিরঙ্কুশ ভাবে সমর্থন করেছে। আমি ও আমার পরিবার আপনাদের পাশে ছিলাম, আছি এবং যতদিন বেঁচে থাকি থাকবো ইনশাআল্লাহ।

 

আমাদের বিজয়ে সবাই ধৈর্য ধারণ করবেন। কারো প্রতি বিরূপ আচরণ করবেন না। হার জিত লড়াই যুদ্ধ নানা মত কথার আঘাত নির্বাচনের অংশমাত্র। দিনশেষে আমরা সবাই এই শহরের সন্তান, সবাই সবার পরম আত্মীয়। নির্বাচনের চায়ের টেবিলের উত্তেজনা ভুলে সবাই মিলে বন্ধুর গান গাইবো একসাথে আজ থেকে। তিনি আরও বলেন, আমি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে এবং কৃতজ্ঞতা জানাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও আমার দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বরগুনা জেলা শাখাকে।

দেশ গড়ার এই সংগ্রামে জনগণের জয়-বাংলাদেশের জয় অনিবার্য। আল্লাহ আমাদের সহায়হোন – জয় বাংলা -জয় বঙ্গবন্ধু বলে তিনি বরগুনা পৌরবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।