পিরোজপুরের শিক্ষকের আঘাতে চোখ হারাতে বসেছে জিহাদ

প্রকাশিত: 1:59 PM, September 26, 2019

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় শিক্ষকের মারধরে শিক্ষার্থী জিহাদ (১৬) একটি চোখ হারাতে বসেছে। এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে উপজেলার সাপলেজা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে অভিযুক্ত শিক্ষক গোলাম রব্বানি লিটনের বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করে। শিক্ষার্থী জিহাদ সাপলেজা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র ও সৌদি প্রবাসী বাবুল বেপারীর ছেলে।

আহত শিক্ষার্থীর বড় ভাই রুম্মান বেপারী জানান, গত ২৫ আগস্ট সকালে সাপলেজা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক গোলাম রব্বানি লিটনের কাছে প্রাইভেটপড়ার সময় বেত দিয়ে আঘাত করলে জিহাদের বাম চেখে আঘাত লাগে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে খুলনা ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতালের চক্ষু বিভাগে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেন। বর্তমানে জিহাদ ঢাকা হারুন আই ফাউন্ডেশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক গোলাম রব্বানি লিটন ছুটিতে থাকায় তার সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।সাপলেজা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাশেদ জানান, এ ঘটনার কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবে এ বিষয়ে ম্যনেজিং কমিটি ও শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

Share Button