পিরোজপুরের কাউখালীতে পরিত্যক্ত অবস্থায় ভাঙা হ্যান্ডকাফ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৯:১৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২১

কাউখালী সংবাদদাতা ॥ পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলায় পরিত্যক্ত অবস্থায় একজোড়া ভাঙা হ্যান্ডকাফ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলার লাংগুলী সাহাপুরা গ্রামে একটি ওষুধের দোকানের সামনে থেকে হ্যান্ডকাফজোড়া উদ্ধার করা হয়। তবে হ্যান্ডকাফজোড়া কাদের এ বিষয়ে কেউই দায় স্বীকার করছে না। সোমবার সকাল আটটার দিকে স্থানীয়রা ওষুধের দোকানের সামনে একটি তেঁতুল গাছের গোড়ায় ভাঙা অবস্থায় হ্যান্ডকাফজোড়া দেখতে পান। এরপর স্থানীয় গ্রাম পুলিশ সেখান থেকে হ্যান্ডকাফজোড়া উদ্ধার করে কাউখালী থানায় পৌঁছে দেন।

 

তবে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রবিবার বিকেলে পিরোজপুর ডিবি পুলিশের একটি দল মাদক উদ্ধারে গিয়ে উপজেলার বৌলাকান্দা বদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছ থেকে সাহাপুরা গ্রামের কিবরিয়া (২২) ও রাজাপুরের শাহারিয়ার আহম্মেদ শুভ (২০) নামের দুই মাদক ব্যবসায়ীকে ৫০ পিস ইয়াবা আটক করে। এ সময় তাদের হাতে হ্যান্ডকাফ পরানো হয়। এরপর ডিবি পুলিশকে ধাক্কা দিয়ে হ্যান্ডকাফসহ সেখান থেকে পালিয়ে যান। বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ার পর স্থানীয়দের মাঝে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এরপরই সোমবার সকালে পরিত্যক্ত অবস্থায় হ্যান্ডকাফজোড়া দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন।

 

এলাকাবাসী আরো জানান, কাউখালীর সাহাপুরা গ্রামের মাসুদ খানের ছেলে কিবরিয়া হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামি ঝালকাঠি ও কাউখালীতে তার মাদক ব্যবসা। এর আগেও একবার কাউখালীর থানার পুলিশ গ্রেফতার করতে গেলে একজন এসআই কে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন শুভ। ঘটনার বিষয়ে কাউখালী থানা এবং পিরোজপুর ডিবি পুলিশের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে রবিবার রাতে শাহারিয়ার আহম্মেদ শুভকে আসামী করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে কাউখালী থানায় মামলা করেছেন পিরোজপুরের ডিবি পুলিশের এস.আই মিলন ।

আসামী পালিয়ে যাবার বিষয়টি সম্পর্কে জানা নাই বলে জানান পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মোল্লা আজাদ হোসেন। তবে এ বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছেন বলে জানান তিনি।