পিটিয়ে ছাত্রের পা ভেঙে দিলেন প্রধান শিক্ষক

প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৯

বরগুনায় স্কুলে না যাওয়ায় বাসায় গিয়ে পিটিয়ে এক ছাত্রের পা ভেঙে দিলেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক। গতকাল রোববার বিকেলে উপজেলার বেতাগীতে এ ঘটনা ঘটে।আহত অবস্থায় ওই স্কুলছাত্রকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তার নাম মো. সাব্বির হোসেন। সে উপজেলার চিন্তাহরণ শিকদার মেমোরিয়াল স্কুলের ছাত্র।

জানা গেছে,শিকদার মেমোরিয়াল স্কুলের ছাত্র সাব্বির হোসেন গত দুই দিন স্কুলে না যাওয়ায় গতকাল রোববার স্কুলের প্রধান শিক্ষক বাদল সিকদার তার বাসায় যান। বাসায় গিয়ে স্কুলে না যাওয়ায় কারণ জিজ্ঞেস করেন তিনি। এসময় সাব্বির স্কুলে না যাওয়ার কারণ জানালে মায়ের সামনে লাঠি দিয়ে পেটাতে থাকেন তিনি। সাব্বিরের মা শিখা আক্তার বাধা দিলে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন ওই শিক্ষক। পরে চেয়ার আর খাটের উপর সাব্বিরে পা রেখে তার উপর উঠে দাঁড়ান। এতেই সাব্বিরের পা ভেঙে যায়। পরে আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. তাহেরা বেগম বলেন, ‘সাব্বিরের পায়ে ফ্র্যাকচার হয়েছে।সাব্বিরের মা লাখী আকতার শিখা বলেন,‘আমার ছেলের সঙ্গে এমন আচরণের সুষ্ঠু বিচার চাই। থানায় অভিযোগ দিয়েছি।তবে এ বিষয়ে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক বাদল শিকদার বলেন, ‘আমি ক’টা চড় থাপ্পড় দিয়েছি। অন্য কিছু ঘটেনি।বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রাজীব আহসান বলেন, ‘আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ সাহেবকে বলেছি।