পাপনের নাম হতে যাচ্ছে ‘মিস্টার ইন্টারফেয়ারার’!

প্রকাশিত: ৩:০৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০

অনেক বড় স্বপ্ন নিয়ে পাঁচ পাণ্ডব নিয়ে ২০১৯ আইসিসি বিশ্বকাপ খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু মাঠের খেলায় হতাশা ছাড়া কিছুই পায়নি মাশরাফি মোর্ত্তজার দল। সেই বিশ্বকাপ থেকে যে ভরাডুবির শুরু তা এখনো চলমান। আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টে হারসহ ভারত-পাকিস্তানের বিপক্ষে টানা ইনিংস ব্যবধানে হার। ক্রিকেটাররা যেন হারিয়ে খুঁজছে নিজেদের।

ব্যাপারগুলো মানতেই পারছেন না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তাই এখন থেকে আর বসে থাকবেন না, সবকিছুতেই নিজেকে জড়িয়ে রাখবেন। বিসিবি বস ধারণা করছেন, তার নাম হতে যাচ্ছে ‘মিস্টার ইন্টারফেয়ারার’!

গতকাল বুধবার বিসিবিবে সংবাদ ব্রিফিংয়ে দলের সমস্যাটা নিজের কাঁধে তুলে নেন পাপন। বলেন, ‘একটু তো হোঁচট খাচ্ছিই। এজন্য সবচেয়ে বড় দায়টা আমার নিজেরই। আমি একটু বেশিই ক্রিকেট থেকে সরে এসেছিলাম। সরে আসতে চাচ্ছিলাম আর কী। ভেবেছিলাম, অনেক হয়েছে, আস্তে আস্তে নিজেরাই সব করতে পারবে। এখন দেখছি, আবার আগের মতো হয়ে যেতে হবে। ওই যে আপনারা নাম দিয়েছিলেন মিস্টার ইন্টারফেয়ারার। ওইরকম আবার মনে হয় একটা নাম হতে যাচ্ছে।‘

পাকিস্তানের বিপক্ষে রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম টেস্টে মুমিনুলরা হেরেছেন ইনিংস ও ৪৪ রানের বড় ব্যবধানে। টানা ৩ টেস্টসহ সর্বশেষ ছয়টি টেস্টের মধ্যে পাঁচটিতেই লাল সবুজের প্রতিনিধিরা হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। আর বিদেশের মাটিতে সর্বশেষ ৮টি টেস্টের সাতটিতেই টাইগাররা হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে।

ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিং নেওয়ায় খেপেছিলেন পাপন। অথচ তাকে বলা হয়েছিল ফিল্ডিং নেবে। এগুলোসহ এখন থেকে ক্রিকেটারদের সব বিষয়েই পাপন নজরবন্দী রাখবেন।

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘টসে জিতলে কী নেব, স্কোয়াড কী হবে, কে কত নম্বরে নামবে, এসব আমার সঙ্গে আগেই কথা হতো। সেটা এখন কিন্তু নাই। এখন আরও উল্টো হয়। আমাকে যদি বলে টসে জিতে ফিল্ডিং নেব, খেলা শুরু হওয়ার পর দেখি ব্যাটিং নেয়। তো আমি কিছু বুঝি না। এটা শুরু হয়েছে ভারত সফর থেকে। এর আগে ধাক্কাটা খেয়েছি আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে। তখন আমি দেশের বাইরে ছিলাম। যা বলে গেলাম, হয়েছে তার পুরাই উল্টো।’

ভারতের বিপক্ষে দুই টেস্টেই টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছিলেন মুমিনুল হক। যেটা মোটেও পছন্দ হয়নি বিসিবি বিগ বসের। এর আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষেও একই সমস্যা হয়েছিল। বিশ্বকাপে তো মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে দল নেমেছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে। এবার আর হাতা গুটিয়ে বসে  থাকবেন না।

Sharing is caring!