পাথরঘাটায় বরফ মিলে গ্যাস বিস্ফোরণে নিহত ১ : আশঙ্কাজনক ৫ জন

প্রকাশিত: ৮:০৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২১

তরিকুল ইসলাম রতন, স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরগুনার পাথরঘাটায় গ্যাস বিস্ফোরণে একজন নিহত হয়েছেন এবং দুই ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ ৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১২ টার দিকে পাথরঘাটা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মোল্লা নামের বরফ মিলে এঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে আহত দুই ফায়ার সার্ভিসের কর্মী রেজাউল ও মারুফ হোসেনকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন ৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাক্তার আবুল ফাতাহ।

এছাড়াও এঘটনায় শতাধিক আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। আহতদের পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে নারী ও শিশুর সংখ্যাই বেশী। এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তি হচ্ছেন পিরোজপুর জেলার পারেরহাট উপজেলার বাদুরা গ্রামের মৃত আব্দুল জলিল মিয়ার ছেলে শাহজাহান হোসেন সম্রাট (৫৫)।
এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিষাক্ত গ্যাস অ্যামোনিয়া ছড়িয়ে পড়ায় এলাকায় এখন আতঙ্ক বিরাজ করছে। অনেকেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন, ফায়ার সার্ভিস স্টেশনেরও দুইজন গুরুতর অসুস্থ হয়েছেন।

এঘটনার পরপরই বরগুনা-২ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব শওকত হাচানুর রহমান রিমন (এমপি), পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাবরিনা সুলতানা, পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন হাসপাতালে উপস্থিত হয়ে খোঁজখবর নিয়েছেন। এবিষয়ে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা আবুল ফাতাহ জানান, আহতদের সর্বাত্মক চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। তবে অক্সিজেন সংকট দেখা দেওয়ায় মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে পারে বলে তিনি ধারণা করেন।

পাথরঘাটা ফায়ার সার্ভিসের দায়িত্বরত কর্মকর্তা খলিলুর রহমান জানান, সংবাদ পেয়ে সাথে সাথে আমাদের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। আমাদের কাছে প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি না থাকায় গ্যাসের তীব্র গন্ধে কাছে যাওয়া সম্ভব হয়নি।

তিনি আরও জানান, এসময় আমাদের দুজন ফায়ার সার্ভিস কর্মীও অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদেরকে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে¬ক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চিকিৎসকের পরামর্শে বরিশালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

এঘটনায় সহায়তা করার জন্যে ভান্ডারিয়া এবং বামনা উপজেলা থেকে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে ছুটে আসে বলেও তিনি জানান।