পশুর হাট নিয়ে এখনো ভাবনা নেই বরিশাল জেলা প্রশাসনের

প্রকাশিত: ৬:৩৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অন্য সবার মতো মাত্র কদিন পরেই দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসব ঈদুল আযহা (কোরবানি) পালন করবে বরিশালের মানুষ। করোনা পরিস্থিতিতে এবারের উৎসব কিংবা উদযাপনের ব্যস্ততার রং ফিকে হয়েছে অনেকটা। কিন্তু স্রষ্টার নৈকট্য লাভের আশায় এ অঞ্চলের ধর্মপ্রাণ লাখ লাখ মানুষের পশু কোরবানি থেমে থাকবে না এবারও।

প্রতিবছর কোরবানির পশু কেনার মূল ভরসা হয়ে ওঠে জেলার বিভিন্ন জায়গায় স্থাপিত অস্থায়ী পশুর হাট। করোনা সংকটের বর্তমান পরিস্থিতিতে এসব হাট পরিচালনা বা ব্যবস্থাপনার বিষয়ে এখনো কোন দৃশ্যমান পদক্ষেপ নেয় নি স্থানীয় প্রশাসন। আর কোরবানির পশুর হাট যেন করোনা জীবাণু সংক্রমণের অন্যতম স্থান না হয় সে ব্যাপারে নজর দেবার তাগিদ দিয়েছে স্থানীয় সচেতন নাগরিক সমাজ।
বরিশাল মহানগর ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা কাজি আব্দুল মান্নান জানান, যাদের ওপর কোরবানি ওয়াজিব তাদের সবাইকে পশু কোরবানির মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করতে হবে। আবার করোনা জীবাণুর আক্রমণ থেকে নিজেকে ও পরিবারকে মুক্ত রাখার চেষ্টাও করতে হবে। এই দুটি বিষয় গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় কোরবানির পশুর হাট যেন ক্রেতাদের জন্য নিরাপদ হয় সে ব্যাপারে প্রশাসনের পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

তিনি পরামর্শ দেন, যদি বিগত দিনের চেয়ে ছোট জায়গা নিয়ে কিন্তু বেশি সংখ্যক পশুর হাট করা যায় ও নির্দিষ্ট এলাকার মানুষদের জন্য নির্দিষ্ট পশুর হাট নির্ধারণ করা হয় তবে সংক্রমণ এড়ানো সম্ভব। তবে এক্ষেত্রে প্রতিটি হাটে ক্রেতাদের শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করা ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের ব্যাপারে যথাযথ নজরদারি রাখতে হবে।

অন্যদিকে কোরবানির পশু কেনা বেচার জন্য অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব ও বরিশালের নাগরিক ইকবাল হোসেন তাপস। তিনি বলেন, কোরবানির হাটে যে ধরনের ভিড়ভাট্টার চিরায়ত চিত্র আমরা দেখি সেটা যেন এবার ফিরে না আসে সে ব্যাপারে অবশ্যই লক্ষ্য রাখতে হবে। এজন্য অনলাইনে পশু বিক্রিকে স্থানীয় প্রশাসনের উৎসাহিত করা উচিত। এছাড়া সাধারণ হাটগুলো ডিজিটালাইজড করে সেগুলোতে যথাসম্ভব সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা জরুরী।

এ ব্যাপারে বরিশাল জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান জানান, কোরবানির পশুর হাটের ব্যাপারে এখনো উল্লেখযোগ্য কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয় নি। তবে এবারের পশুর হাট পরিচালনা বিগত দিনের মতো হবে না। তিনি উল্লেখ করেন, করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই আমরা পশুর হাট ব্যবস্থাপনা নতুন করে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নিয়েছি। এ ব্যাপারে আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই যথাযথ পদক্ষেপ সবার নজরে আসবে।