পটুয়াখালীতে সন্তানদের সামনেই হাত-পা বেঁধে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৭:৩৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২০

কামরুল হাসান রুবেল, রাঙ্গাবালী প্রতিনিধি ::

পটুয়াখালীর রঙ্গাবালী রাঙ্গাবালী উপজেলায় শিশু সন্তানদের সামনেই এক গৃহবধূকে (৩২) হাত-পা বেঁধে নির্যাতন ও গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের চরমার্গারেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শাকিল আহম্মেদ(২১) ও আল হাদী(২২) নামের দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ভিকটিমের স্বামী জানান, তিনি ব্যবসার কাজে বাজারে ছিলেন। হাঠাৎ রাত সাড়ে ৯ টার দিকে বাসার নম্বর থেকে তার ফোনে একটি কল আসে। ফোন রিসিভ করলে কান্নার শব্দ শুনতে পান। কিছু না বলেই কলটি কেটে দেয়া হয়। পরে ফোনটি বন্ধ করে দেয়া হয়। কয়েক বার কল করেও না পেয়ে তার মনে সন্দেহ জাগে। তাড়াতাড়ি বাড়ি রওনা হন। বাড়ি ফিরে ঘর অন্ধকার দেখতে পান। টর্চ লাইট মেরে টেবিলের সঙ্গে তার স্ত্রীকে হাত-পা বাধা অবস্থায় দেখতে পান।

পাশে বসে কান্না করছে তার দুই শিশু সন্তান। স্ত্রীর দিকে তাকিয়ে সারা শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন দেখতে পান। অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে আছেন তিনি। অনেক ডাকাডাকি করলেও কথা বলেননি। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় স্ত্রীকে গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি দেখে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক ভিকটিমকে পটুয়াখালী সদর হাসাপাতালে রেফার করেন।

রাঙ্গাবালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো.আলী আহম্মেদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ যায়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই যুবককে থানায় আনা হয়েছে। ভিকটিম পরিবারের অভিযোগ ও তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Sharing is caring!