পটুয়াখালীতে প্রেমিকার ঘর থেকে প্রেমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৬:৪৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০২০

জামাল আকন, পটুুয়াখালী প্রতিনিধি ॥

পটুয়াখালী শহরের মুসলিমপাড়া এলাকায় প্রেমিকার বাসা থেকে প্রেমিক তানভির রহমান (২০) এর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সন্ধ্যায় পৌরশহরের ৫ নং ওয়ার্ডের মোঃ শাহিন মিয়ার বাসায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা-বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মৃত তানভির রহমান সদর উপজেলার বড়বিঘাই এলাকার মোঃ নুরুল হক মাষ্টারের ছেলে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, এ ঘটনায় ওই বাসার মালিক ও তার স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সদর থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

প্রাথমিক অনুসন্ধান শেষে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি ) আকতার মোর্শেদ জানান, প্রায় দেড় বছর পূর্বে তানভির রহমান এর সাথে পটুয়াখালী সরকারী বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী (প্রেমিকার) মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয়ের সূত্র ধরেই প্রেমের সম্পর্ক। বিষয়টি প্রেমিক/ প্রেমিকার উভয়ের পরিবারের মধ্যে জানাজানি হলেও কোন বাধা দেননি। এই সুযোগে তানভির রহমান প্রায়ই প্রেমিকার বাসায় আসা যাওয়া করতেন এমনকি প্রেমিকার ঘরেই রাত যাপনও করতেন। এসব বিষয়ে প্রেমিকার মায়ের বরাদ দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ওসি আকতার মোর্শেদ।

তিনি আরও জানান, বরাবরের মত মঙ্গলবার বিকালে তানভির রহমান তার প্রেমিকার বাসায় আসেন। রাতের খাবার শেষে ঘরের দোতলায় প্রেমিকার রুমে ঘুমাতে যান। আর প্রেমিকা তার মায়ের সাথে নীচে ঘুমান। প্রেমিক/প্রেমিকার দুজনের জব্দকৃত মোবাইল মেসেঞ্জারে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী ওসি আকতার মোর্শেদ বলেন, রাত ১২টা থেকে তারা দুইজন মোবাইল ফোনের মেসেঞ্জারে কথোপকথন শুরু করেন। রাত সোয়া তিনটার সময় তানভির রহমান প্রেমিকাকে উপরে আসতে বলেন।

এসময় তানভীর দৈহিক সম্পর্কের চাহিদা মিটাতে অনুরোধ করেন প্রেমিকাকে। এক পর্যায় পৌনে চারটার দিকে তানভির ম্যাসেজ দেন ”তুমি উপরে না আসলে আমি কিন্তু আত্মহত্যা করবো।” জবাবে প্রেমিকা বলছে, বড় ভাই এখনও সজাগ আমি যেতে পারবোনা। তুমি মরলে মরো।” দুইজনের জব্দকৃত মোবাইল ফোন থেকে সবশেষ এই মেসেজ পেয়েছে পুলিশ।এছাড়াও মৃত্যুর আগ মুহূর্তে প্রেমিক তানভির সেলফি তুলে রেখে গেছেন বলে জানান।

এছাড়াও ওসি জানান, বুধবার দুপুরে প্রেমিকার বাবা দোতলায় গিয়ে তানভিরকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলতে দেখে ভয়ে পুরো বিষয়টি গোপন রাখেন সারাদিন। পরে সন্ধ্যায় স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে পুলিশ গিয়ে তানভির রহমানের ঝুলন্তলাশ উদ্ধার করে। তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যার লক্ষণ পরিলক্ষিত হলেও পোষ্টমর্টেম রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত সুনির্দিষ্টভাবে কিছুই বলা যাচ্ছেনা। তাছাড়া মৃত তানভির রহমানের পরিবারের পক্ষ থেকেও কোন অভিযোগ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।