পটুয়াখালীর থানায় আত্মসমর্পণ করে পুরস্কার পেল তিন মাদকসেবী

প্রকাশিত: ৬:২৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর থানায় আত্মসমর্পণ করে পুরস্কার পেলেন তিন মাদকসেবী। শনিবার বিকেলে ‘দরিদ্র মাদকসেবী পুনর্বাসন কর্মসূচি’র আওতায় আত্মসমর্পণ করেন তারা।আত্মসমর্পণকারীরা হলেন মহিপুর সদর ইউনিয়নের কমরপুর গ্রামের মো. ইউনুচ বয়াতির ছেলে মো. রাসেল বয়াতি, বিপিনপুর গ্রামের মো. শহিদ হাওলাদারের ছেলে মো. বাবু হাওলাদার এবং কুয়াকাটা পৌরসভার পশ্চিম কুয়াকাটা গ্রামের আ. গফ্ফার মুন্সীর ছেলে মো. হাবিব মুন্সী।এ উপলক্ষে বিকেল ৩টায় থানা ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মো. রাসেল বয়াতিকে নগদ ৫ হাজার টাকা, মো. বাবু হাওলাদারকে একটি ভ্যানগাড়ি, মো. হাবিব মুন্সীকে একটি সেলাই মেশিন তুলে দেন পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান।

মহিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সোহেল আহম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি আ. বারেক মোল্লা, লতাচাপলী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আনছার উদ্দিন মোল্লা, ধুলাসার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আ. জলিল আকন, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক মো. শাহআলম হাওলাদার, মহিপুর প্রেস ক্লাব সভাপতি মো. মনিরুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে ওই মাদকসেবীদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য ধন্যবাদ জানান এবং অন্য মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িতদের ফিরে আসার জন্য অনুরোধ করেন। মাকদসেবীরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসলে পুনর্বাসনের পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে চলমান মাদক মামলায় আইনি সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

Sharing is caring!