নতুন বাজারের ফেন্সি হারুন ফেন্সিডিল ও ভারতীয় রুপিসহ গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১০:৩০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ::

নগরীর নতুন বাজার এলাকার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ ওরফে ফেন্সি হারুনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮। এসময় তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ২৮ বোতল ফেন্সিডিল, মাদক বিক্রির নগদ ২ লক্ষ ৮৫ হাজার ৮৫৫ টাকা এবং ১৫ হাজার ভারতীয় রুপি।

গত সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নতুন বাজার এলাকার ডায়মন্ড গলিতে নিজ ঘর থেকে গ্রেফতার করা হয় নগরীর উত্তর জনপদের ফেন্সি স¤্রাট হারুন অর রশিদকে।

গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ (৬২) নগরীর ১৯ নম্বর ওয়ার্ডস্থ নতুন বাজার এলাকার ডায়মন্ড গলির বাসিন্দা মৃত শফি উদ্দিন মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে কোতয়ালী মডেল থানায় মাদক আইনে আরও ৯টি মামলা রয়েছে।

এছাড়া তার স্ত্রী বেবী একই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধেও কোতয়ালী মডেল থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তাছাড়া একটি মামলায় তিনি যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি। অভিযোগ রয়েছে উচ্চ আদালত থেকে জামিনে বের হয়ে এখনো মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন বেবী।

এদিকে ফেন্সি হারুনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব জানিয়েছে, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২১ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নতুন বাজার ডায়মন্ড গলিতে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-৮, বরিশাল সিপিএসসি কোম্পানির বিশেষ অভিযানিক দল।

এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টা করেন হারুন অর রশিদ। তবে র‌্যাবের আভিযানিক দলের চৌকস সদস্যরা চার দিক থেকে ঘেরাও করে তাকে গ্রেফতার করেন। পরে তার বসতঘর থেকে ফেন্সিডিল, মাদক ব্যবসার নগদ অর্থ এবং ভারতীয় রুপি উদ্ধার করা হয়।

এই ঘটনায় সোমবার রাতে কোতয়ালী মডেল থানায় র‌্যাব-৮, বরিশাল সিপিএসসি’র ডিএডি মো. আল মামুন শিকদার বাদী হয়ে মহানগরীর কোতয়ালী মডেল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

এছাড়া গ্রেফতারকৃত হারুনকে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন তারা। পরে মঙ্গলবার সকালে থানা পুলিশ আদালতের মাধ্যমে হারুনকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।
এদিকে স্থানীয় একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ‘নতুন বাজার এলাকায় হারুন এবং তার স্ত্রী বেবী’র নিয়ন্ত্রণেই মাদক ব্যবসা চলছে। হারুন আটক হলেও তার স্ত্রীর ব্যবসা থেমে নেই। নতুন বাজার বস্তির মধ্যে বসেই চলছে তার ফেন্সিডিল এবং গাঁজার ব্যবসা। এ কাজে সহযোগিতা করছে বেবীর ছেলে। অভিযোগ উঠেছে নতুন বাজারে বগুরা পুলিশ ফাঁড়ির নিকটে বেবীর মাদক ব্যবসা চললেও রহস্যজনক কারণে তা বন্ধে উদ্যোগ নিচ্ছে না ফাঁড়ি পুলিশ। এ বিষয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন মহলের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন স্থানীয়রা

Sharing is caring!