নগরী ও গৌরনদী থেকে নেশাজাতীয় ইনজেকশনসহ ৭ জন আটক

প্রকাশিত: ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল নগরী ও গৌরনদীতে অভিযান চালিয়ে নেশা জাতীয় ইনজেকশনসহ ৭ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ৩৬২ অ্যাম্পুল নেশাজাতীয় ইনজেকশন উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় বরিশাল মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মহিউদ্দিন আহমেদ-পিপিএম বাদী হয়ে কোতয়ালী মডেল থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার তাদেরকে আদালতের কাছে সোপর্দ করা হলে বিচারক তাদের জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন- বরিশাল নগরীর বাসিন্দা ও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী শেখ আবদুল্লাহ, গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড এলাকার ওষুধ ব্যবসায়ী এবং প্যাথেডিন/মরফিনের হোল সেলার জামাল হোসেন এবং তাদের সহযোগী রেজাউল ইসলাম রেজা, আপন, আকাশ ও হাসানসহ ৭ জন।

অভিযানের নেতৃত্ব দেয়া গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মহিউদ্দিন আহমেদ-পিপিএম জানান, গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. মঞ্জুর রহমানের নির্দেশে এবং অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) রেজাউল করিম এর তত্ত্বাবধায়নে অফিসার-ফোর্স নিয়ে নগরীর দক্ষিণ আলেকান্দা এলাকায় অভিযান চালান তিনি। এসময় সেখান থেকে নগরীর চিহ্নিত মাদক কারবারি শেখ আবদুল্লাহকে আটক করা হয়। পরে তাকে তল্লাশী করে ১৮ পিস নেশাজাতীয় ইনজেকশন উদ্ধার করা হয়।

পরে তার দেয়া স্বীকারক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবার রাতেই গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড এলাকার একটি ফার্মেসিতে অভিযান চালান। এসময় ওই ফার্মেসি থেকে ৩৪৪ পিস নেশাজাতীয় ইনজেকশনসহ ফার্মেসি মালিক জামাল হোসেনকে আটক করা হয়। জামাল হোসেন হোল সেলার। তার কাছ থেকে নেশাজাতীয় ইনজেকশন কিনে আনেন শেখ আবদুল্লাহ। পরে তিনি আটককৃত সহযোগীদের দিয়ে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করে আসছিলেন বলে জানান এসআই মহিউদ্দিন।

Sharing is caring!