নগরীতে মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তার হাতকড়া নিয়ে পালালেন যুবক !

প্রকাশিত: ১০:২৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥

বরিশাল নগরীতে হাতে হাতকড়া পরিয়ে মাদক দিয়ে যুবককে ফাঁসানোর চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিপ্তরের পরিদর্শক আব্দুল মালেক তালুকদারের বিরুদ্ধে। ঘটনার পর পরই হাতকড়া নিয়ে পালিয়ে যান ওই যুবক। শুধু তাই নয়, ঘটনার পরে স্থানীয়দের তোপের মুখে পড়তে হয় ওই কর্মকর্তাকে। পরে স্থানীয় কাউন্সিলরের হস্তক্ষেপে হাতকড়া ফিরে পান মালেক তালুকদার।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বিকালে বরিশাল নগরীর বান্দ রোডস্থ শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল স্টেডিয়ামের সামনে। হাতকড়া নিয়ে পালিয়ে যাওয়া যুবক নগরীর পলাশপুর এলাকার শাহাদত হোসেনের ছেলে রিয়াদ (২২)। স্টেডিয়ামে ফুটবল খেলা শেষে বাসায় ফেরার পথে তাকে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মালিক আটকের পর এই ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, ‘সোমবার বিকালে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল স্টেডিয়ামে ফুটবল খেলায় অংশ নেন রিয়াদ। সন্ধ্যার পূর্বে খেলা শেষ করে বাসায় ফিরছিলেন তিনি। পথিমধ্যে স্টেডিয়ামের মূল ফটকে রিয়াদের পথরোধ করে কিছু বুঝে ওঠার আগেই তার হাতে হাতকড়া পরান মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক আব্দুল মালেক।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, হাতকড়া পরিয়ে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ওই কর্মকর্তা যুবককে গাঁজা দিয়ে চালান দেয়ার ভয় দেখান। এ নিয়ে তাদের মধ্যে উচ্চবাচ্য হলে স্থানীয়রা শুনে ফেলেন। তখন বিষয়টি নিয়ে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ের ওই কর্মকর্তার সাথে বাকযুদ্ধে অংশ নেন স্থানীয়রাও। সেই সুযোগে হাতকড়া নিয়ে পালিয়ে যান রিয়াদ নামের যুবক।

এদিকে ঘটনার পর রিয়াদ পালিয়ে গিয়ে পুরো ঘটনাটি পলাশপুরে পাঁচ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে অবগত করেন। এর পর পরই হাতকড়া ফিরে পেতে পলাশপুরে হাজির হন বিতর্কিত কর্মকর্তা আব্দুল মালিক। কিন্তু সেখানে সুবিধা করতে পারেননি তিনি। স্থানীয়দের তোপের মুখে পড়তে হয় তাকে। পরে অবশ্য দুই কাউন্সিলরের হস্তক্ষেপে হাতকড়া ফিরে পান আব্দুল মালেক তালুকদার।

এ বিষয়ে জানতে আব্দুল মালেক তালুকদারের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার মুঠোফোনের নম্বরটি বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে পুরো ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট ওয়ার্র্ড কাউন্সিলর।

 

Sharing is caring!