নগরীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করলেও মিছিল করতে পারেনি বিএনপি

প্রকাশিত: ১০:৩২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ::

সদ্য সমাপ্ত জাতীয় সংসদ উপ-নির্বাচনে কারচুপি ও জালিয়াতির প্রতিবাদ এবং পুনরায় নির্বাচনের দাবিতে বরিশাল বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জেলা ও মহানগর বিএনপি। তবে সমাবেশ শেষে মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশের বাধায় তা পণ্ড হয়ে গেছে। সোমবার সকালে বরিশাল জেলা ও মহানগর বিএনপি পৃথকভাবে সদর রোডস্থ অশ্বিনী কুমার হল চত্বর ও দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোমবার সকাল ১১ টায় অশ্বিনী কুমার হল চত্বরে যৌথ উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ করে উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপি। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপি’র বরিশাল বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস আক্তার জাহান শিরিন। এছাড়া সভাপতিত্ব করেন বরিশাল জেলা (দক্ষিণ) বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব এবায়দুল হক চাঁন।

প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় বিলকিস আক্তার জাহান শিরিন বলেন, ‘বর্তমান ভোটার বিহীন অবৈধ সরকার বাংলাদেশকে ধর্ষণের রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। সর্বত্রই এখন ধর্ষণের মহোৎসব চলছে। সরকার সংবিধান লঙ্ঘন করে প্রজাতন্ত্রের পুলিশ বাহিনীকে নিজেদের স্বার্র্থে ব্যবহার করে তাদেরকে আওয়ামী লীগের বাহিনীতে পরিণত করেছে।
তিনি বলেন, ‘সাধারণ মানুষের বাক স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে, তাদের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে।

একের পর এক নির্বাচনেন কারচুপি করে নিজেরা ক্ষমতা দখল করেছে। সরকারি দলের লুটপাটের কারণে দেশের নিত্যপণ্যের দাম এতোটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। তাই গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে অবৈধ সরকার হটিয়ে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার আহ্বান জানান তিনি।

প্রতিবাদ সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন উত্তর জেলা বিএনপি’র সভাপতি, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ, দক্ষিণ জেলা’র সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবুল কালাম শাহিন, দপ্তর সম্পাদক আলহাজ্ব্ মন্টু খান, উত্তর জেলার দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরুল আলম রাজু, কোতয়ালী বিএনপি’র সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন লাবু, দক্ষিণ জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এইচ.এম তছলিম উদ্দিন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জে.এম আমিনুল ইসলাম লিপন, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক জাবের আবদুল্লাহ সাদী, দক্ষিণ জেলা মহিলা দলের সভাপতি অধ্যাপক ফারহানা তিথি, উত্তর জেলা মহিলা দলের সভাপতি শায়লা শারমিন মিমু, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিএম আতায়ে রাব্বি, জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম সুজন।

এদিকে জেলা বিএনপি’র ব্যানারে নেতা-কর্মীরা সদর রোডে বিক্ষোভ মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ নিয়ে পুলিশ ও নেতা-কর্মীদের মধ্যে কিছু সময় ধাক্কা-ধাক্কির এক পর্যায় বিএনপি’র মিছির পণ্ড হয়ে যায়।

এদিকে একই দাবিতে সদর রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে মহানগর বিএনপি। কমিটির সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম রুনু সরদারের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপি’র যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ আকবর, সহ-সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক তারিন, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ হাসান মামুন, মহানগর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক মো. ফয়েজ আহমেদ খান, মহিলা দল নেত্রী ফাতেমা-তুজ-জোহরা মিতু প্রমুখ।

 

Sharing is caring!