দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকের সাথে অশালীন আচরণ

প্রকাশিত: ৯:১৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০২০

গজনবী, দৌলতখান প্রতিনিধি  ::

ভোলার দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত ডাক্তার মো. নূরুল ওয়ারা সালেহ্ (সিফাত) কে চিকিৎসা প্রদানকালে বাধা প্রদান ও টেবিল চাপড়ে অশালীন ভাষায় গালমন্দ করেছেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা নাজিম উদ্দিন হাওলাদার। ঘটনাটি ঘটেছে ১৫ আগস্ট (শনিবার) সকাল ১১ টায় দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগের ৩ নং কক্ষে। এসময় হাসপাতাল চত্বরে উপস্থিত থাকা কর্মচারী ও জনতা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার ও ওই চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

ডাক্তার মো. নূরুল ওয়ারা সালেহ্ (সিফাত) জানান, আমি সকাল থেকে বহির্বিভাগের ৩ নং কক্ষে রোগী দেখছিলাম। সকাল ১১ টায় নাজিম উদ্দিন হাওলাদার সিরিয়াল না মেনে তার নাতিকে নিয়ে আমার কক্ষে ঢুকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য বলেন। আমি তাকে টিকেট কেটে আসতে বললে তিনি আমাকে বলেন “আমার কি টিকেট কাটা লাগে?” এরপর টিকেট নিয়ে এসে তিনি আমার রোগী দেখা অবস্থায় বার বার বাধা প্রদান করেন তার নাতিকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য বলেন। আমি তাকে বলি, আপনি একটু অপেক্ষা করেন আমি চেয়ারে বসা রোগী দেখে আপনাদের দেখছি।

এ কথা বলতে না বলতে তিনি উত্তেজিত হয়ে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন এবং টেবিল চাপড়ে আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করতে করতে কক্ষ থেকে বের হয়ে যান। আমি তাকে ডেকে জানতে চাই, আচ্ছা আমি কি অন্যায় করেছি তা কি জানতে পারি? তিনি আমার কোন কথা না শুনে হুমকি-ধামকি দিতে থাকেন এবং আমাকে দেখিয়ে দিবেন বলে জানান। বিষয়টি আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

এ ব্যাপারে দৌলতখান থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলার রহমান জানান, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Sharing is caring!