দুই বছর পিছিয়ে যেতে পারে টোকিও অলিম্পিক!

প্রকাশিত: ৪:৫৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ১১, ২০২০

করোনাভাইরাসের কারণে শেষ পর্যন্ত দুই বছর পিছিয়ে যেতে পারে টোকিও অলিম্পিক গেমস! টোকিও অলিম্পিক আয়োজন কমিটির এক কর্মকর্তা এমন শঙ্কাই প্রকাশ করেছেন। সে ক্ষেত্রে ২০২০ সালের পরিবর্তে অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হতে পারে, ২০২২ সালে।

করোনাভাইরাসের কারণে ইতিমধ্যেই চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালিসহ অনেক দেশেই খেলাধুলার সমস্ত আয়োজন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে যে, আগামী জুলাইয়ে অনুষ্ঠিতব্য অলিম্পিক গেমসও পিছিয়ে যেতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছিল আগে থেকে।

এবার সেই শঙ্কার পালে নতুন হাওয়া, টোকিও অলিম্পিক দুই বছরের জন্য স্থগিত হয়ে যেতে পারে। গেমসটির আয়োজক কমিটির এক কর্মকর্তাই এই শঙ্কার কথা জানিয়েছেন।

আয়োজক কমিটির ২৫ সদস্যের নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য হারিউকি তাকাহাসি জানিয়েছেন, পুরো অলিম্পিক আসর বাতিল করে দেয়ার চেয়ে দুই বছরের জন্য পিছিয়ে দেয়া অনেক ভালো। কারণ, এখানে ইন্টারন্যাশনাল অলিম্পিক কমিটির (আইওসি) অনেক অর্থনৈতিক বিষয় জড়িত রয়েছে।

যদিও এতদিন টোকিও অলিম্পিক আয়োজক কমিটি কিংবা আইওসি’র পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছিল, সূচি অনুযায়ী আগামী জুলাই-আগস্টে যে কোনোভাবেই হোক অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হবে। আয়োজক কমিটির সদস্য তাকাহাসি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমরা এপ্রিল থেকেই এ বিষয়ে সতর্ক পর্যবেক্ষণ শুরু করবো। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি যদি খুব বেশি সিরিয়াস অবস্থায় চলে যায়, তখন হয়তো বা গেমস বাতিল করা হবে কিংবা স্থগিত করে পরে সুবিধাজনক সময়ে আয়োজন করা হবে।’

তবে পুরোপুরি বাতিল করা হলে অনেক সমস্যা দেখা দেবে। এ নিয়ে তাকাহাসি বলেন, ‘গেমস বাতিল করা হলে আইওসি অনেক সমস্যায় পড়বে। কারণ, এক আমেরিকান টিভি চ্যানেলই তাদেরকে সম্প্রচার বাবদ বিশাল অংকের অর্থ প্রদান করে থাকে।’

এসব কারণেই তাকাহাসি বলেন, একেবারে বাতিল করার চেয়ে দুই বছর বিলম্বে গেমস আয়োজন করাটাই হবে যক্তিযুক্ত। যদিও, ২০২২ সালে অলিম্পিক গেমস আয়োজন হলে সেটার আবার একটা সমস্যা দেখা দেবে। কারণ, একই সময়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে কমনওয়েলথ গেমসেরও।