দুই ওষুধের সমন্বিত ডোজে সাফল্য দেখছেন মার্কিন চিকিৎসকরা

প্রকাশিত: ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৩, ২০২০

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারন করা করোনাভাইরাসের আজ পর্যন্ত স্বীকৃত কোনো ওষুধ বা টিকা আবিষ্কার করা সম্ভব হয়নি। তবে বাজারে বিদ্যমান বিভিন্ন ভাইরাসবিরোধী ওষুধ প্রয়োগে কোভিড-১৯ রোগীকে সুস্থ করার ক্ষেত্রে সুফল পাওয়ার দাবি করে আসছেন অনেকেই। এবার সে রকমই একটি দাবি করলেন দুই মার্কিন চিকিৎসক।

যুক্তরাষ্ট্রের লং কোয়ান্টাইরা হেলথের চিকিৎসক ডা. রায়ান সাদি ও প্লেইনভিউ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মুহাম্মদ আলম দাবি করছেন, অ্যান্টিবায়োটিক ডক্সিসাইক্লিনের সঙ্গে হাইড্রোক্সাইক্লোরোকুইন মিশিয়ে নতুন একটি ডোজ তৈরি করে তারা ৫৪ জন করোনা রোগীর ওপর প্রয়োগ করেন। তাদের মধ্যে ৪৫ জনই পুরোপুরি সুস্থ হয়েছেন।

তবে তাদের সমন্বিত ডোজকে করোনার চিকিৎসা হিসেবে ব্যবহারের অনুমোদন এখনো দেয়নি যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষধ প্রশাসন (এফডিএ)। বরং চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এটি গ্রহণ না করতে পরামর্শ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। করোনার চিকিৎসায় এই পদ্ধতি কতটা কার্যকর তা খতিয়ে দেখতে আরো ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হওয়া দরকার বলে মনে করছেন মার্কিন বিশেষজ্ঞরা।

অবশ্য এফডিএ’র এমনটা মনে করার যৌক্তিকতাও আছে। কারণ ওই সমন্বিত ডোজ প্রয়োগে ৪৫ জন সুস্থ হলেও ৯ জন ছয় দিনের পুরো ডোজ শেষ করতে পারেনি। কারণ ডোজটির কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও লক্ষ করা গেছে। তাছাড়া ৯ জনের মধ্যে তিন জন গুরুতর রোগীর মৃত্যুও হয়েছে।

তবে ডা. রায়ান সাদির দাবি, তাদের এই ডোজ গ্রহণ করে যেহেতু উল্লেখযোগ্য সংখ্যক রোগী সুস্থ হয়েছেন, সেহেতু বিষয়টিতে গুরুত্ব দেওয়া উচিত। বর্তমান প্রেক্ষাপটে দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যেনই এর ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সম্ভব বলেও মনে করেন তিনি।