দীর্ঘ দিন পর বরিশালের রাজপথে উত্তর জেলা যুবদলের ব্যানারে কর্মসূচি পালন

প্রকাশিত: ১০:০৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ::

দীর্ঘ দিন পরে বরিশাল উত্তর জেলা যুবদলের ব্যানারে রাজপথে আন্দোলন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। সংগঠনটির ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে উত্তর জেলা যুবদলের ব্যানারে র‌্যালি ও আনন্দ মিছিল করেছেন নেতা-কর্মীরা। আর এ র‌্যালি এবং মিছিলের নেতৃত্ব দেন বরিশাল জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম সুজন।

তার নেতৃত্বে নগরীর ফকিরবাড়ি রোড থেকে বের হওয়া মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা ও মহানগর বিএনপি কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়।
এসময় মিছিলে সাইফুল ইসলাম সুজন ছাড়াও উত্তর জেলা যুবদল নেতা নূরে আলম বাবু, তানজিম, মো. রুবেল খান, রবিউল ইসলাম, তালুকদার হাসান মাহমুদ, মো. শহিদুল ইসলাম শহিদ, কে.এম আসাদ মাহমুদ, আবু কালাম, দেলোয়ার হোসেন মোল্লা, আলী আকবর সম্রাট, জাকির হোসেন রাঢ়ী, উত্তর জেলা যুবদলের আওতাধীন বিভিন্ন উপজেলা এবং পৌর শাখা যুবদলের নেতা-কর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

জানাগেছে, বিতর্কিত এবং অযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে ইতিপূর্বে গঠন করা হয় বরিশাল উত্তর জেলা যুবদলের কমিটি। একই সময় দক্ষিণ জেলা যুবদলের কমিটিও অনুমোদন দেয় কেন্দ্র। দক্ষিণ জেলা যুবদল তাদের সুযোগ কাজে লাগিয়ে নেতৃত্বের যোগ্যতার প্রমাণ দিলেও নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে উত্তর জেলা। এ কারণে দীর্ঘ দুই বছরের অধিক সময় ধরে বরিশালের রাজপথে আন্দোলন-সংগ্রাম কিংবা দলীয় কর্মসূচিতে দেখা যায়নি উত্তর জেলা যুবদলকে। এমন পরিস্থিতিতে বিতর্কিদের এড়িয়ে বরিশাল উত্তর জেলা যুবদলকে সু-সংগঠিত করতে নির্দেশ দেন বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

তার দেয়া নির্দেশনার পর পরই উত্তর জেলা যুবদলে নেতৃত্ব পেতে লবিং-তদবির শুরু করেছেন অনেক নেতা-কর্মী। তাদের মধ্যে একজন ছাত্র রাজনীতিতে দৃষ্টান্ত তৈরি করা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম সুজন। যিনি উত্তর জেলা যুবদলের আহ্বায়ক পদ প্রত্যাশী হয়েছেন। তারেক রহমানের দৃষ্টি থাকায় এবারের কমিটিতে অযোগ্য এবং অনুপ্রবেশকারীরা মূল্যায়ন পাবেন না বলে মনে করেন তিনি। আর তাই নিজের রাজনৈতিক যোগ্যতার প্রমাণ দিতেই উত্তর জেলা যুবদলের পদপ্রত্যাশী হয়েছেন সাইফুল ইসলাম সুজন। রাজনৈতিক সিন্ডিকেট আর অর্থ শক্তির কাছে পরাজিত সাবেক সক্রিয় ছাত্র নেতা সাইফুল ইসলাম সুজন বিরোধী দলে থেকে হামলা-মামলাসহ তার রাজনৈতিক ত্যাগের বিষয়ে মূল্যায়নের দাবি রেখেছেন তারেক রহমানসহ যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে।

জানাগেছে, ‘বরিশাল জিলা স্কুলে ৭ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত অবস্থায় ছাত্রদলের রাজনীতিতে নাম লেখান সাইফুল ইসলাম সুজন। সেই থেকেই শুরু হয় তার বিএনপি’র রাজনীতিতে পথচলা। কিন্তু দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ সাইফুল ইসলাম সুজনকে রাজনৈতিক সিন্ডিকেটের কারণে পদে পদেই হোঁচট খেতে হয়েছে।

সবশেষ তিনি বরিশাল জেলা ছাত্রদলের সভাপতি পদ প্রত্যাশী ছিলেন। একজন ত্যাগী রাজপথের নেতা হওয়া সত্ত্বেও সিন্ডিকেটের কারণে বঞ্চিত হতে হয় তাকে। তবে এর পরেও রাজনীতির মাঠ থেকে হাত-পা গুটিয়ে নেননি তিনি। বরং দলকে ভালোবেসে একজন কর্র্মী হিসেবেই সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে বিশাল সমর্থকবাহিনী নিয়ে অংশগ্রহণ করে আসছেন। তারই ধারাবাহিকতায় যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে উত্তর জেলা যুবদলের ব্যানারে কর্মসূচি পালন করেছেন সাইফুল ইসলাম সুজন।

 

Sharing is caring!