দায়িত্ব ফিরে পেলেন বাবুগঞ্জের চেয়ারম্যান নুরে আলম !

প্রকাশিত: ৬:৫৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩, ২০২০

 

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ॥
সাময়িকভাবে বরখাস্ত হয়ে থাকার ৫ মাস পর আবারো দায়িত্ব ফিরে পেয়েছেন বাবুগঞ্জ উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূরে আলম ব্যাপারি।
গত ২৩ আগস্ট অনুষ্ঠিত হাইকোর্টের চেম্বার জজের বিচারপতি এনায়েতুর রহিম উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নূর আলমের দায়েরকৃত রিট পিটিশনের ওপর দীর্ঘ শুনানি শেষে তার বিরুদ্ধে বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করে তার পক্ষে রায় দেন।

যা ২৩ আগষ্ট ২০২০ তারিখ স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ এর উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহম্মেদ চৌধুরি স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই প্রজ্ঞাপনের পরিপ্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে গত ২৩ আগষ্ট তারিখেই ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলম দায়িত্ব হস্তান্তর ও স্বপদে পুনঃবহাল প্রসঙ্গে বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দফতরে একটি বার্তা এসে পৌঁছে।

দীর্ঘ ৫ মাস পর দায়িত্ব ফিরে পাওয়া প্রসঙ্গে কেদারপুর চেয়ারম্যান নুরে আলম স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, ৪ দিন পূর্বে আমি আমার পরিষদে যোগদান করেছি । এ বিজয় জনগণের বিজয়। একটি মিথ্যা মামলায় আমাকে যে হয়রানি করা হয়েছিল তা কেদারপুরবাসী মেনে নিতে পারে নি। এ রায়ের ফলে সত্যের জয় হয়েছে আর মিথ্যার পরাজয় ঘটেছে। একটু দেরীতে হলেও সত্যের জয় হয়েছে। তাই আজ তিনি তার চেয়ারে বসে আবার দায়িত্ব পালন করবেন। এজন্য তিনি কেদারপুর ইউনিয়নবাসীকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৫ মার্চ ২০২০ ইং তারিখ ত্রানের চাল আত্তসাতের অভিযোগ উঠলে ২৩ এপ্রিল ২০২০ ইং তারিখে স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ বাবুগঞ্জ উপজেলার ২ নং কেদারপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরে আলম ব্যাপারিকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছিল।।

Sharing is caring!