ত্রাণের চাল বিক্রির অভিযোগে দুমকিতে ইউপি চেয়ারম্যানসহ ২ সদস্য বরখাস্ত

প্রকাশিত: ৫:৩৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০২০

এম আমির হোসাইন, দুমকি প্রতিনিধি ::

ত্রাণের চাল আত্মসাৎ ও কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে দুমকি উপজেলার মুরাদিয়া ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৩ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত আদেশে উপজেলার ৩নং মুরাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও জাপা নেতা জাফর উল্লাহ, ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য মাহফুজুর রহমান খান ও ২নং ওয়ার্ড সদস্য জাহিদুল ইসলামকে গত ১৯ অক্টোবর থেকে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

বরখাস্তকৃতরা যোগসাজশে হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত সরকারী চাল আত্মসাতপূর্বক কালো বাজারে বিক্রির অভিযোগে বিশেষ ক্ষমতা আইন ১৯৭৪এর ২৫(১)/২৫(খ) ধারায় দুমকি থানায় ০১/৭৯ নং মামলা রুজু হওয়ায় পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসকের সুপারিশ মোতাবেক স্থানীয় সরকার বিভাগের ১৯ অক্টোবর’২০২০ তারিখের ১১১৩ স্মারকের প্রজ্ঞাপনে জনস্বার্থে তাদের সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। একই আদেশে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯এর ৩৪(৪) (খ)(ঘ) ধারার অপরাধে কেন তাদেরকে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত করা হবে না, তা আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে কারণ দর্শানোর নির্দেশও দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ৫অক্টোবর মুরাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ গুদাম থেকে আত্মসাতকৃত ত্রাণের চাল বিক্রি ও অটোবাইকযোগে তা পাচারকালে স্থানীয় জনতা হাতে নাতে ধরে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তাকে অবহিত করেন।

খবর পেয়ে দুমকির ভারপ্রাপ্ত ইউএনও আল ইমরান তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে ১৫বস্তা ত্রাণের চাল জব্দ করেন। এব্যাপারে ওইদিন রাতে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বাদি হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান ও দু’সদস্য পলাতক রয়েছেন।

Sharing is caring!