তৃতীয় দিনে বরিশালের টিকাদান কেন্দ্রে ভিড় বেড়েছে দ্বিগুণ

প্রকাশিত: ১১:০৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ তৃতীয় দিনের ন্যায় বরিশালে করোনা ভাইরাস টিকা কেন্দ্রে প্রচুর ভিড় দেখা গেছে। প্রথম দুই দিন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে টিকা প্রদান কার্যক্রম এবং কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া না থাকায় উদ্বুদ্ধ হয়ে টিকা নিতে কেন্দ্রে ভিড় জমাচ্ছেন মানুষ। তারা টিকা নিতে পেরে খুশী। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ‘টিকা প্রদান কার্যক্রমের শর্ত শিথিল করায় সম্মুখ যোদ্ধা ছাড়াও তাদের ১৮ ঊর্ধ্ব পরিবারের সদস্য এবং ৪০ বছরের ঊর্ধ্বে সাধারণ জনগণ টিকা নিতে ভিড় করছেন। অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন ছাড়াও স্পট রেজিস্ট্রেশন করে তাৎক্ষণিক টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করার কথা জানিয়েছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস। তিনি জানান, ‘গত রবিবার প্রথম দিন বরিশাল বিভাগের ৬ জেলা এবং সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ৪৩ কেন্দ্রে কোভিড-১৯ টিকা নিয়েছেন ১ হাজার ৪১২ জন। সোমবার দ্বিতীয় দিন টিকা নিয়েছেন ১ হাজার ৫৪৪ জন।

 

গত দুই দিনের টিকা প্রদান কার্যক্রমের চিত্র বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেখে এবং কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার খবর না পেয়ে মঙ্গলবার তৃতীয় দিনে প্রতিটি কেন্দ্রে আগ্রহীরা ভিড় করেছেন।

 

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টিকাদান কেন্দ্রের একটি বুথে টিকা প্রদানের দায়িত্বে থাকা নার্সিং কর্মকর্তা লাবনী আক্তার বলেন, ‘আগের চেয়ে টিকা প্রদানের শর্ত শিথিল করায় সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাড়াও অনেক সাধারণ জনগণ তৃতীয় দিনে টিকা নিতে ভির করেছেন। দ্বিতীয় দিনের থেকে তৃতীয় দিনে ভিড় দ্বিগুণ ছিল বলে দাবি তার। আগামীতে ভিড় আরও বাড়বে বলে আশাবাদী ওই সিনিয়র স্টাফ নার্স।

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস বলেন, ‘সিটি এলাকাসহ বরিশাল বিভাগের ছয়টি জেলায় টিকা প্রদান কার্যক্রম চলছে। এর মধ্যে দুটি পুলিশ লাইন্স, একটি মেডিকেল কলেজ, ছয়টি জেনারেল হাসপাতাল এবং বাকী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি করে বুথে টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ৪৫০টি টিম রয়েছে। টিকাগ্রহণকারীদের চাপ বাড়লে টিমের সংখ্যা এবং বুথ আরও বাড়ানো হবে।