তজুমদ্দিনে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী অপহরণ : আটক-১

প্রকাশিত: ৩:১৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২০

তজুমদ্দিন প্রতিনিধি ॥ ভোলার তজুমদ্দিনে সপ্তম শ্রেণিতে পড়–য়া এক স্কুল ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে পেলে জোরপূর্বক তুলে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ২/৩ জনকে অভিযুক্ত করে তজুমদ্দিন থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করে।

ছাত্রীর মা সেলিনা আক্তার জানান, শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে তার শম্ভুপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণিতে পড়–য়া মেয়ে (১২) গোসল করতে পুকুর ঘাটলায় যায়। এরপর দীর্ঘ সময় সে বাসায় ফিরে না আসায় তারা খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। পরে তাদের প্রতিবেশী সজিবকে জিজ্ঞেস করলে সজিব জানান, লালমোহন উপজেলার লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের জিএম বাজার সংলগ্ন আঃ মালেকের ছেলে মোঃ বেলাল হাসান তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গেছে।

এঘটনায় ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে তজুমদ্দিন থানায় ৫ জনকে অভিযুক্ত করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে এসআই শামীম শম্ভুপুর ইউনিয়নের কেরামত আলী পাটওয়ারী বাড়িতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত বেলাল হাসানের বড় ভাই এমরানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তজুমদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম জিয়াউল হক বলেন, অপহৃতার পিতার অভিযোগের আলোকে একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। অপহৃতাকে উদ্ধারে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। উল্লেখ্য, ছাত্রী অপহরণকারী বেলাল হাসান ইতিমধ্যে শম্ভুপুর ইউনিয়নে আরেকটি বিবাহ করেন।

Sharing is caring!