ঝালকাঠি জেলা মৎস্য অফিসে চরম জনবল সংকট

প্রকাশিত: ৮:৩২ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৬, ২০২০

আককাস সিকদার, ঝালকাঠি প্রতিনিধি ॥ ঝালকাঠি জেলা মৎস্য বিভাগে চরম জনবল সংকটে কার্যক্রম স্থবির হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। জেলা মৎস্য অফিস ও ৪টি উপজেলায় ৩৪টি পদের মধ্যেু ২১টিই বর্তমানে শূন্য। চার উপজেলার মধ্যে রাজাপুর ও কাঠালিয়া উপজেলায় মৎস্য কর্মকর্তার পদ শূন্য দীর্ঘদিন। এই পরিস্থিতির মধ্যে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান, জাটকা রক্ষা কর্মসূচিসহ মৎস্য সেক্টরের উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনায় হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে দাবী করেছেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল কৃষ্ণ ওঝা।

জেলা মৎস্য অফিস সূত্র জানায়, ঝালকাঠি জেলা সদরে ৪ জন কর্মকর্তাসহ ১১টি পদের ৭টি পদই শূন্য রয়েছে। অফিস সহায়ক, গাড়ি চালক, প্রধানসহকারী ফিস-কাম-কম্পিউটার অপারেটর ও সিনিয়র সহকারী পরিচালকের পদ শূন্য রয়েছে। জেলায় ৩০ বছর ধরে একটি লক্কর ঝক্কর গাড়ি দিয়ে জেলা কর্মকর্তাকে চলাচল করতে হচ্ছে। আর ৩০ বছর ধরেই গাড়ি চালকের পদটি শূন্য অবস্থায় রয়েছে।

বারবার তাগিদ দেওয়া সত্ত্বেও চালকের পদে কাউকে নিয়োগ দেওয়া হয়নি। বাহিরের লোক দিয়ে মাস্টার রোলে চালকের কাজ করতে হচ্ছে। ঝালকাঠি সদর উপজেলায় ৬টি পদের মধ্যে ২টি পদ শূন্য। ক্ষেত্র সহকারী ও অফিস সহকারী নেই। নলছিটি উপজেলায় ৬টি পদের মধ্যে চারটি পদই শূন্য- ক্ষেত্র সহকারী, অফিস সহায়ক, অফিস সহকারী ও সম্প্রসারণ কর্মকর্তার পদগুলো শূন্য। কাঠালিয়া উপজেলায় ৬টি পদের মধ্যে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা, অফিস সহকারী ও সম্প্রসারণ অফিসার পদগুলো শূন্য রয়েছে। রাজাপুর উপজেলায় ৬টি পদের মধ্যে ৩টি পদ শূন্য।

এই উপজেলায় খোদ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা, অফিস সহায়ক ও সম্প্রসারণ অফিসার পদ শূন্য রয়েছে। জেলা সদরে অবস্থিত মৎস্য বীজ উৎপাদন খামার ও হ্যাচারির ৫টি পদের দুজন কর্মরত আছেন। পাম্প চালক, অফিস সহায়ক ও অফিস সহকারী পদ দীর্ঘদিন শূন্য রয়েছে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল কৃষ্ণ ওঝা বলেন, পদ পূরণের জন্য একাধিকবার প্রধান কার্যালয়ে চিঠি দেয়া হয়েে