ঝালকাঠির গাভায় বোম্বাই মরিচ দিয়ে নারীকে নির্যাতন বিষয়ে আবারো সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ১:৫৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৪, ২০২০

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ॥ ঝালকাঠির বালিঘোনা গ্রামে মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রীকে বোম্বাই মরিচের পানি দিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় গতকাল বুধবার স্থানীয় প্রেস কাবে আরও একটি সংবাদ সম্মেলন হয়েছে। সকাল ১১ টায় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন বালিঘোনা গ্রামের মো. মিজানুর রহমান ও মোক্তার আলী সিকদার।

লিখিত বক্তব্যে মিজানুর রহমান বলেন, মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বিউটি বেগম আমাদের মা চাচীর বয়সী। তিনি কখনও আমাদের কাছ থেকে কোনো টাকা পয়সা ধার নেন নাই। তার সাথে আমাদের কোনো বিরোধ নাই। তিনি কখনও আমাদের তার বাড়িতে ডাকেন নাই। গত ১৯ জুন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. নুরে আলম সংবাদ সম্মেলন করে আমাদের জড়িয়ে যে সকল বক্তব্য রেখেছেন তা মিথ্যা ও বনোয়াট।

উল্লেখ্য, গত ১৭ জুন ঝালকাঠি প্রেস কাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেন বালিঘোনা ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বিউটি বেগম।

তিনি অভিযোগ করেন একই ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নূরে আলমের নেতৃত্বে একই এলাকার হারুন মোল্লা, খলিলুর রহমান, ইমরুল হোসেন, রায়হান, বিপ্লব, তানিয়া, মুক্তা আক্তার, হিরামনি এরা সবাই মিলে গত ১৯ মে বিউটি বেগমের মাথায় এক কলস বোম্বাই মরিচ মেশানো পানি ঢেলে দেন এবং সবাই মিলে মারধর করেন।

বিউটি বেগমের বক্তব্যের প্রতিবাদ করে গত ১৯ জুন সংবাদ সম্মেলন করেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নূরে আলম। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ঘটনার সাথে তিনি জড়িত নন। বালিঘোনা গ্রামের মিজানুর রহমান ও মোক্তার আলী সিকদারের সাথে টাকা পয়সার লেনদেন নিয়ে বিরোধের কারণে বিউটি বেগমের ওপর মরিচের পানি ঢালা হয়েছে বলে তিনি শুনেছেন।