ঝালকাঠিতে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা আত্মসাতকারী প্রতারকের বিচার দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৬:৫১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২, ২০২১

আককাস সিকদার, ঝালকাঠি প্রতিনিধি ॥ ঝালকাঠিতে সুলতান আহম্মেদ দুয়ারী নামে এক প্রতারক প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সুলতান হোসেন মাঝির ওসমানি সনদ কেড়ে নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে রাষ্ট্রীয় সুযোগ সুবিধা ভোগ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি ধরা পড়ায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় তাঁর গেজেট ও সনদ বাতিল করে দেয়। প্রতারক সুলতান দুয়ারীকে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে শনিবার সকাল ১১টায় ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করা হয়েছে। প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সুলতান হোসেন মাঝির পরিবারসহ গ্রামের সাধারণ মানুষ এ কর্মসূচিতে অংশ নেন।

মানববন্ধনে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার পরিবার প্রতারক সুলতান দুয়ারীর দীর্ঘ দিন ধরে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা আত্মসাত করা প্রায় ১০ লাখ টাকা ফেরত দেওয়ার দাবি জানান। পরে ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সুলতান মাঝির স্ত্রী ফরিদা বেগম।

 

এ সময় তাঁর ছেলে মিরাজ মাঝি ও ভাগিনা মো. সোহেল হাওলাদারসহ ২০/২৫ জন গ্রামবাসী উপস্থিত ছিলেন। ফরিদা বেগমের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভাগিনা মো. সোহেল হাওলাদার।
লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, সুলতান হোসেন মাঝির কাছ থেকে ২৫/২৬ বছর আগে মুক্তিযুদ্ধের ওসমানি সনদ নিয়ে যান তারই বন্ধু নেহালপুর গ্রামের সুলতান আহমেদ দুয়ারী। বন্ধুর নাম মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে দেয়ার কথা বলে নিজের নামে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় ঢুকিয়ে ভাতাসহ সকল সুযোগ ভোগ করেন সুলতান দুয়ারী। গত ১৫ বছরে ভাতা হিসেবে উঠিয়ে নিয়েছেন প্রায় দশ লাখ টাকা। স্ত্রী সন্তানকে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরি দিয়ে নিয়েছেন নানা সুবিধা।

এমনকি মিথ্যা তথ্য দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের ঘরের জন্যও আবেদন করেন। অবশেষে প্রতারক সুলতান দুয়ারীর মুক্তিযোদ্ধা সনদ ও গেজেট বাতিল করা হয়েছে। ২০২০ সালের ২২ নভেম্বর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপসচিব রথিন্দ্রনাথ দত্ত স্বাক্ষরিত বাতিলের চিঠিটি ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠানো হয়।

 

এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিতে বলা হয়েছে। প্রতারণার মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধার সনদ গ্রহণকারী সুলতান হোসেন দুয়ারীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সুলতান হোসেন মাঝিকে গেজেটভুক্ত করে ভাতা প্রদানের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দা ও সুলতান মাঝির পরিবার।

 

অভিযুক্ত সুলতান দুয়ারীর দাবি, তিনি একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযোদ্ধার সনদ বাতিলের আদেশের বিরুদ্ধে তিনি হাইকোর্টে মামলা করেছেন। মামলা চলমান থাকা অবস্থায় গেজেট বাতিল বে-আইনি। ঝালকাঠি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবেকুন্নাহার বলেন, মন্ত্রণালয়ের চিঠির পরে সুলতান হোসেন দুয়ারীর ভাতা বন্ধ করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হবে কি না, সে বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।