ঝালকাঠিতে জেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটির পরিচিতি সভা

প্রকাশিত: ৯:৪৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২১

আককাস সিকদার, ঝালকাঠি প্রতিনিধি ॥ ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১১ টায় টাউন হলের দলীয় কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। নবগঠিত জেলা কমিটির সভাপতি সরদার মো. শাহ আলমের সভাপতিত্বে পরিচিতি সভায় ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি। তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসার পরে প্রতিহিংসার রাজনীতি শুরু করেছিল। তারাই দেশের গণতন্ত্র ধবংস করে সংবিধান কলুষিত করেছিল। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হয়েছে। সংবিধানকে মর্যাদা দিয়ে সব ধরনের কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, অনেকে আছেন বিএনপির সঙ্গে আঁতাত করে রাজনীতি করছেন। বিএনপি কখনোই আপনাদের বন্ধু নয়। দলের শৃঙ্খলা বজায় রাখতে নেতাকর্মীদের সব সময় সজাগ থাকতে হবে।

সভার শুরুতে জেলা আওয়ামী লীগের প্রয়াত সদস্যদের স্মরণে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ। সভা পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির। সভায় নতুন কমিটির নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন।

২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি চলতি বছরের ১ জানুয়ারি ৭৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেন। কমিটিতে সরদার মো. শাহ আলমকে পুনরায় সভাপতি ও অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনিরকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। কমিটির অন্যরা হলেন, সহসভাপতি শামসুল হক আক্কাস, সিদ্দিকুর রহমান, বিএইচ হারুন, সালাহউদ্দিন আহম্মেদ সালেক, খান আরিফুর রহমান, অ্যাডভোকেট জি.কে মোস্তাফিজুর রহমান, মোবারক হোসেন মল্লিক, ডা. আনোয়ার হোসেন, অ্যাডভোকেট আব্দুল জলিল, ওয়াহেদ কবির ও অ্যাডভোকেট সনজিব কুমার বিশ্বাস, যুগ্মসম্পাদক মুজিবুল হক আকন্দ, মো. নুরুল আমিন খান সুরুজ ও তরুন কর্মকার, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট এস.এম. রুহুল আমিন রিজভী, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক মঈন তালুকদার, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট গোলাম কিবরিয়া ঝন্টু, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক কবির হোসেন আকন, দপ্তর সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক প্রিন্সিপাল মুহাম্মদ আব্দুর রশীদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম আলম খান কামাল, বন ও পরিবেশ সম্পাদক খসরু নোমান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মো. মনিরুজ্জামান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হোসনে আরা মান্নান, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক ওয়ালিউর রহমান হিরু, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক জাহাঙ্গীর সরদার, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক আবুল বাশার বাদশা, শ্রম সম্পাদক এস.এম আরিফ মানিক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মনোয়ার হোসেন খান, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. পবিত্র কুমার দেবনাথ, সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিল, শারমীন মৌসুমী কেকা ও মেজবা উদ্দিন খান, উপদপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুনসী আবুল কালাম আজাদ, উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মনির মাহমুদ সোহেল, কোষাধ্যক্ষ মো. মনিরুল ইসলাম তালুকদার, সদস্য অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান রসুল, ফাতেমা ফিরোজ, ইসমাইল হোসেন, অধ্যাপক আনায়ার হোসেন পান্না, অ্যাডভোকেট মাহবুবার রহমান, ব্যারিস্টার সুমাইয়া হোসেন, তসলিম উদ্দিন চৌধুরী, আব্দুর রশিদ হাওলাদার, হাবিবুর রহমান উজির সিকদার, হাফিজ আল মাহমুদ, অ্যাডভোকেট ইউনুস লস্কর, অ্যাডভোকেট খাইরুল আলম সরফরাজ, জিয়া হায়দার খান লিটন, এমাদুল হক মনির, অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন কবির, ইসরাত জাহান সোনালী, ডালিয়া নাসরিন, ফাতিমা খানম , মোরসেদা লস্কর, আবু সাঈদ খান, অ্যাডভোকেট তপন কুমার রায় চৌধুরী, মো. লিয়াকত আলী তালুকদার, মাহাবুব হোসেন, আবুল কালাম আজাদ মাসুম, আব্দুস শুকুর মোল্লা, ডা. অসীম কুমার সাহা, নাসির উদ্দিন তালুকদার, এ্যাড. শহিদুর রহমান বাচ্চু, মহসিন নকিব, মোসারফ গোলদার, অ্যাডভোকেট মোহাম্ম হোসেন আকন খোকন, লস্কর আসিফুর রহমান দিপু, গোলাম মাওলা ফরহাদ, অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন ও অ্যাডভোকেট তরিকুল ইসলাম খোকন সিকদার।