জিয়ার খেতাব বাতিল চেষ্টার প্রতিবাদে নগরীতে জেলা বিএনপি’র সমাবেশ

প্রকাশিত: ৯:৪৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের খেতাব বাতিলের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বরিশালে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। রবিবার সকালে নগরীর প্রাণকেন্দ্র সদর রোডস্থ অশ্বিনী কুমার হল চত্বর এবং দলীয় কার্যালয়ের সামনে বরিশাল উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে পৃথকভাবে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকাল সাড়ে ১০টায় সদর রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে উত্তর জেলা যুবদল। এতে সভাপতিত্ব করেন উত্তর জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ।

 

এসময় প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএনপি’র উত্তর জেলা শাখার সহ-সভাপতি সৈয়দ রফিকুল ইসলাম লাবু, কোষাধ্যক্ষ ও হিজলা উপজেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক আব্দুল গফ্ফার তালুকদার, দপ্তর সম্পাদক নুরুল আলম রাজু, উত্তর জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি কবীর উদ্দিন আনসারী, বরিশাল জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম সুজন, হিজলা উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক বেল্লাল জমাদ্দার প্রমুখ।

 

অপরদিকে একই ঘটনার প্রতিবাদে অশি^নী কুমার হল চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে বরিশাল দক্ষিণ জেলা বিএনপি। এতে সভাপতিত্বে করেন সংগঠনের সভাপতি এবায়দুল হক চাঁন।

 

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন উত্তর জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবুল কালাম শাহীন, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী ফারজানা তিথি, কোতয়ালী থানা বিএনপি’র সভাপতি অ্যাডভোকেট এনায়েত হোসেন বাচ্চু, উজিরপুর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল মাজে সিকদার, পৌর বিএনপি’র সভাপতি শহিদুল ইসলাম হাওলাদার, জেলা কৃষক দলের আহ্বায়ক মীর মহসিন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক জাবের আবদুল্লাহ সাদী, দক্ষিণ জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ.এম তসলিম উদ্দিন প্রমুখ।

 

এসময় বক্তারা বলেন, ‘শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের বীর উত্তম খেতাবটি কারো কাছ থেকে ভিক্ষা করে আনা হয়নি। এটি দেশের জন্য ত্যাগ এবং তার কষ্টার্জিত খেতাব। ২৫ মার্চ কালরাতে পাক বাহিনীর হামলার ভয়ে আওয়ামী লীগ নেতারা যখন পালিয়ে গিয়েছিল তখন দেশের হয়ে প্রথম স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে জিয়াউর রহমান নিজেই মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন।’

 

নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘আল জাজিরার মাধ্যমে বর্তমান অবৈধ সরকারের দুর্নীতির তথ্য প্রকাশ পাওয়ার কারণে দেশের মানুষের চিন্তা-চেতনা ভিন্ন আঙ্গিকে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপব্যবহার করে শহীদ জিয়ার খেতাব কেড়ে নেয়ার অপচেষ্টা হচ্ছে। সরকার যতই অপচেষ্টায় লিপ্ত হোক না-কেন দেশের মানুষের মন থেকে জিয়াউর রহমান নামটি কোন দিনই মুছে ফেলা যাবে না। তাই জিয়াউর রহমানের খেতাব নিয়ে কোন ষড়যন্ত্র করা হলে আন্দোলনের মাধ্যমে দেশ অচল করে দেয়ার হুঁশিয়ারী দেন বিএনপি নেতৃবৃন্দ।